Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

রাহুল-অভিষেকের নির্দেশ, বিভিন্ন ব্যাঙ্কের সামনে হেল্প ডেস্ক কং-তৃণমূলের

নিজস্ব সংবাদদাতা
১৩ নভেম্বর ২০১৬ ১৮:৩৫
বউবাজারে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের শাখার সামনে কংগ্রেসের সহায়তা কেন্দ্র। ছবি: সংগৃহীত।

বউবাজারে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের শাখার সামনে কংগ্রেসের সহায়তা কেন্দ্র। ছবি: সংগৃহীত।

রাহুল গাঁধী এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের সেবায় পথে নামল কংগ্রেস এবং তৃণমূল। রবিবার সকাল থেকে বিভিন্ন ব্যাঙ্ক এবং এটিএম কাউন্টারের সামনে সহায়তা শিবির খোলা হল কংগ্রেস এবং তৃণমূলের তরফে। টাকা তোলা বা জমা দেওয়ার জন্য দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা সাধারণ মানুষের মধ্যে জল ও বিস্কুট বিলি করা হল। ফর্ম পূরণের জন্য সাহায্য নিতে অনেক গ্রাহক নিজে থেকেই এগিয়ে গেলেন হেল্প ডেস্কের দিকে।

৫০০ আর ১০০০ টাকার নোট রাতারাতি বাতিল করে দেওয়ার পর সাধারণ মানুষের হয়রানির প্রশ্ন তুলে মোদী সরকারের তীব্র সমালোচনা শুরু করেছে বেশ কয়েকটি বিরোধী দল। জাতীয় স্তরে কংগ্রেস এবং পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল তার মধ্যে অবশ্যই অগ্রগণ্য। তবে সাধারণ মানুষের হয়রানি নিয়ে শুধু সরকারকে দুষেই ক্ষান্ত থাকছে না কংগ্রেস-তৃণমূল। বিভিন্ন ব্যাঙ্কের সামনে রোজ সকাল থেকে লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকছেন যে গ্রাহকরা, তাঁদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়াও শুরু হয়েছে।

Advertisement



ব্যাঙ্কের সামনে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা মানুষের মধ্যে জল ও বিস্কুট বিলি কংগ্রেসের তরফে। ছবি: সংগৃহীত।

কংগ্রেস সহ সভাপতি গাঁধী নিজেই গ্রাহকদের সেবায় দলের কর্মীদের পথে নামার নির্দেশ দিয়েছেন। ফলে রবিবার সকালে কলকাতার বুকেই বিভিন্ন ব্যাঙ্কের সামনে হেল্প ডেস্ক বা সহায়তা কেন্দ্র খুলতে দেখা গিয়েছে কংগ্রেসকে। প্রদেশ কংগ্রেস মানবাধিকার সেলের চেয়ারপার্সন মোনালিসা বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, ‘‘রাহুল গাঁধী নিজে এসএমএস পাঠিয়ে আমাদের বলেছেন, সাধারণ মানুষকে এই সঙ্কটের সময়ে সাহায্য করতে হবে। গোটা দেশেই কংগ্রেস কর্মীরা বিভিন্ন ব্যাঙ্কের সামনে হেল্প ডেস্ক খুলে সেই কাজ শুরু করে দিয়েছেন।’’ রবিবার কলকাতার বউবাজার এলাকা সহ রাজ্যের নানা জায়গায় কংগ্রেস কর্মীরা সহায়তা কেন্দ্র খুলে ব্যাঙ্কের সামনে লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা সাধারণ মানুষের মধ্যে জল-বিস্কুট বিলি করেছেন। টাকা তোলা বা জমার ফর্ম পূরণ করতে যাঁদের সমস্যা হয়েছে, তাঁরাও ওই সব সহায়তা শিবির থেকে সাহায্য পেয়েছেন।

আরও পড়ুন: গোটা দেশে বিরোধী ঐক্যের ডাক, ইয়েচুরিকে ফোন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

একই ছবি তৃণমূল শিবিরেও। সর্বভারতীয় তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দলের কর্মীদের পথে নামার নির্দেশ দিয়েছেন। অভিষেকের বার্তা, ‘‘তরুণ প্রজন্ম এবং আমাদের রাজ্যের সব ভাই-বোন সহ প্রত্যেককে আমি অনুরোধ করছি, এগিয়ে আসুন এবং প্রবীণদের, প্রতিবন্ধীদের, গর্ভবতী মহিলাদের, শ্রমিকদের, কৃষকদের এবং যাঁরা জানেন না ব্যাঙ্কের ফর্ম কী ভাবে পূরণ করতে হয়, দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়ানোর মতো শারীরিক সক্ষমতা যাঁদের নেই, তাঁদের সাহায্য করুন।’’ রাজনৈতিক রং না দেখে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে বলেও ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল সাংসদ আহ্বান জানিয়েছেন। অভিষেকের আগে অবশ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই জানিয়েছিলেন, রবিবার থেকে বিভিন্ন ব্যাঙ্ক ও এটিএম কাউন্টারের সামনে পানীয় জল দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। তাই এ দিন গোটা রাজ্যেই তৃণমূল কর্মীরা মহা উৎসাহে সহায়তা কেন্দ্র খুলেছেন।

আরও পড়ুন

Advertisement