Advertisement
২৮ জানুয়ারি ২০২৩
Mallikarjun Kharge

দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলে সরে যান, বার্তা খড়্গের

আগামী ২৬ জানুয়ারি শ্রীনগরে রাহুল গান্ধীর ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’ শেষ হবে। এই যাত্রার ধাক্কায় কংগ্রেসের ঝিমিয়ে পড়া সংগঠনে কিছুটা হলেও গতি এসেছে বলে দলের নেতাদের মত।

কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খড়্গে।

কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খড়্গে। ছবি: পিটিআই

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২২ ০৬:৫৮
Share: Save:

সাংগঠনিক দায়িত্ব পালনে অক্ষমদের সরে গিয়ে নতুনদের সুযোগ দিতে হবে। নতুন কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খড়্গে আজ দলের নেতাদের এ নিয়ে কড়া বার্তা দিলেন। রবিবার দিল্লিতে কংগ্রেসের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে খড়্গে বলেছেন, ‘‘কিছু নেতা ধরে নিয়েছেন, দায়িত্ব পালনে খামতি থাকলেও কেউ তা দেখবে না। এ সব আর মেনে নেওয়া হবে না।’’

Advertisement

আগামী ২৬ জানুয়ারি শ্রীনগরে রাহুল গান্ধীর ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’ শেষ হবে। এই যাত্রার ধাক্কায় কংগ্রেসের ঝিমিয়ে পড়া সংগঠনে কিছুটা হলেও গতি এসেছে বলে দলের নেতাদের মত। তা জিইয়ে রাখতে যাত্রার পরেই ২৬ জানুয়ারি থেকে পরের দু’মাস ব্লক, জেলা ও রাজ্য স্তরে ‘হাতে হাত জোড়ো’ অভিযান শুরু হবে। পদযাত্রার বার্তা ও তাঁর উপলব্ধি নিয়ে রাহুল একটি চিঠি লিখবেন। কংগ্রেস কর্মীরা তা ঘরে ঘরে পৌঁছে দেবেন। সঙ্গে থাকবে নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিরুদ্ধে ‘চার্জশিট’। দু’মাসের অভিযানে প্রিয়ঙ্কা গান্ধী বঢরাও বড় ভূমিকা নেবেন। প্রতিটি রাজ্যে প্রিয়ঙ্কার নেতৃত্বে ‘মহিলাদের পদযাত্রা’ হবে। মহিলাদের বিষয়ে কংগ্রেসের ইস্তাহারও প্রকাশ হবে। আগামী ফেব্রুয়ারির শেষার্ধে ভোটমুখী ছত্তীসগঢ়ের রায়পুরে তিন দিনের প্লেনারি অধিবেশন বসবে বলে ঠিক হয়েছে। কংগ্রেসের সংবিধান অনুযায়ী, নতুন সভাপতি নির্বাচনের পরে এই প্লেনারি অধিবেশনেই নতুন ওয়ার্কিং কমিটি তৈরি হয়।

খড়্গে মনে করছেন, রাহুলের যাত্রার ফলে কংগ্রেসে যে গতি এসেছে, তা থেকে ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনে ফায়দা তুলতে হলে দলের ‘উপর থেকে নীচে পর্যন্ত সাংগঠিক দায়বদ্ধতা’ ঠিক করতে হবে। আজ তিনি বলেছেন, ‘‘সংগঠন মজবুত, দায়বদ্ধ হলেই আমরা ভোটে জিততে পারব।’’ রাহুল-প্রিয়ঙ্কা রবিবারের বৈঠকে হাজির ছিলেন না। সনিয়া গান্ধী ছিলেন। এআইসিসি-র সাধারণ সম্পাদক, পদাধিকারীদের উদ্দেশে খড়্গে বলেছেন, ‘‘নিজেদের বিবেককে প্রশ্ন করুন, আপনাদের দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকায় মাসে অন্তত ১০ দিন যান? স্থানীয় সমস্যা নিয়ে আন্দোলন করেছেন? জেলা, ব্লক কংগ্রেস কমিটি তৈরি হয়েছে? সেখানে নতুন মুখ তুলে এনেছেন? আগামী ৩০ থেকে ৯০ দিনের কর্মসূচির রূপরেখা কী? ২০২৪-এর আগে বিধানসভা ভোটমুখী রাজ্যগুলিতে পরিকল্পনা ও কর্মসূচি কী?’’ আগামী ১৫ থেকে ৩০ দিনের মধ্যে সাংগঠনিক, রাজনৈতিক কর্মসূচি ঠিক করে তাঁর সঙ্গে দেখা করার নির্দেশও দিয়েছেন খড়্গে।

‘ভারত জোড়ো যাত্রা’য় ব্যস্ত রাহুল বুধবার থেকে শুরু হতে চলা সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে যোগ দেবেন না। রবিবার রাতেই পদযাত্রা মধ্যপ্রদেশ পেরিয়ে রাজস্থানের ঝালাওয়ারে ঢুকছে। অশোক গহলৌত-সচিন পাইলট, যুযুধান দুই নেতাই যাত্রার সময় প্রচারের আলো নিজেদের দিকে টেনে নিতে চাইছেন। দ্বন্দ্ব ঠেকাতে স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক থেকে আজ কংগ্রেস নেতা-কর্মীদের ‘ঐক্যবদ্ধ’ হয়ে কাজ করার ডাক দেওয়া হয়েছে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.