×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১১ মে ২০২১ ই-পেপার

প্রধানমন্ত্রীর উড়ানের তথ্য প্রকাশে স্থগিতাদেশ আদালতের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১১ ডিসেম্বর ২০২০ ১৬:০৭
দিল্লি হাইকোর্ট— ফাইল চিত্র।

দিল্লি হাইকোর্ট— ফাইল চিত্র।

ভারতীয় বায়ুসেনার আবেদন গ্রহণ করে শুক্রবার কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশন (সিআইসি)-এর নির্দেশের উপর স্থগিতাদেশ দিল দিল্লি হাইকোর্ট। তথ্যের অধিকার আইনে (আরটিআই) দায়ের করা আবেদনের ভিত্তিতে সিআইসি-র তরফে ভারতীয় বায়ুসেনাকে স্পেশাল ফ্লাইট রিটার্নস সম্পর্কিত তথ্য প্রকাশের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। সেই নির্দেশের উপরেই এই স্থগিতাদেশ।

ভারতীয় বায়ুসেনার অবসরপ্রাপ্ত কমোডর লোকেশ বাত্রা আরটিআই অনুযায়ী স্পেশাল ফ্লাইট রিটার্নস-এর যাত্রীসংখ্যা সম্পর্কিত তথ্য জানতে চেয়েছিলেন। কিন্তু বায়ুসেনা কর্তৃপক্ষের যুক্তি ছিল, এই উড়ানের সওয়ার হন প্রধানমন্ত্রী এবং তাঁর সফরসঙ্গীরা। বিষয়টি সরাসরি তাঁদের নিরাপত্তা সম্পর্কিত। ফলে এ সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ্যে এলে তাঁদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে।

আবেদনকারী লোকেশ পাল্টা প্রশ্ন তোলেন, যাত্রীসংখ্যা প্রকাশ করা হলে কেন নিরাপত্তা বিঘ্নিত হবে। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা সংক্রান্ত যুক্তি গত ৮ জুলাই সিআইসি খারিজ করে দেওয়ায় দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় বায়ুসেনা। শুক্রবার বিচারপতি নবীন চাওলা নির্দেশের উপর স্থগিতাদেশ জারি করেন। পাশাপাশি, লোকেশকে নোটিস পাঠিয়ে আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে এ সংক্রান্ত বক্তব্য জানিয়ে হলফনামা পেশের নির্দেশ দেন। তবে যাত্রীসংখ্যা জানালে কেন নিরাপত্তা বিঘ্নিত হবে, তা বায়ুসেনার কাছে জানতে চেয়েছেন বিচারপতি চাওলাও।

Advertisement

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সাল থেকে স্পেশাল ফ্লাইট রিটার্নস সম্পর্কিত তথ্য চেয়েছিলেন লোকেশ। সূত্রের খবর, তাঁর মূল উদ্দেশ্য ছিল মনমোহন সিংহ এবং নরেন্দ্র মোদীর সরকারি বিদেশ সফরের সঙ্গীদের সংখ্যা জানা। কিন্তু প্রথম থেকেই এ বিষয়ে অনড় ছিল সরকার পক্ষ। ৮ জুলাই সিআইসি নির্দেশ দিয়েছিল ১৫ দিনের মধ্যে তথ্য প্রকাশের। এর পরেই বায়ুসেনার তরফে মোদী সরকারের আইনি পরামর্শদাতা রাহুল শর্মার মাধ্যমে তা দিল্লি আদালতে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়।

Advertisement