Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Amarinder Singh: উপরাষ্ট্রপতি ভোটে এনডিএ জোটের প্রার্থী হচ্ছেন অমরেন্দ্র সিংহ? খবর বিজেপি সূত্রে

আগামী ৬ অগস্ট অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন। ৫ জুলাই এ সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০২ জুলাই ২০২২ ১৩:৩৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
অমরেন্দ্র সিংহ।

অমরেন্দ্র সিংহ।
ফাইল চিত্র।

Popup Close

চলতি মাসেই আনুষ্ঠানিক ভাবে তিনি বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলে জল্পনা রয়েছে। এরই মধ্যে শনিবার বিজেপির একটি সূত্রে জানা গিয়েছে, উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এনডিএ জোটের প্রার্থী করা হতে পারে পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিংহকে।

পিঠে অস্ত্রোপচারের জন্য অমরেন্দ্র এখন লন্ডনে রয়েছেন। পদ্ম শিবির সূত্রের খবর, সপ্তাহ দু’য়েক পরে দেশে ফিরে এলে বিজেপির সঙ্গে তাঁর দল ‘পঞ্জাব লোক কংগ্রেসের’ মিশে যাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হবে। অমরেন্দ্র উপরাষ্ট্রপতি পদে এনডিএ জোটের প্রার্থী হলে সেই প্রক্রিয়ার নেতৃত্ব দিতে পারেন তাঁর স্ত্রী তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রণীত। পটিয়ালার সাংসদ প্রণীত এখনও খাতায়-কলমে কং‌গ্রেসেই রয়েছেন।

আগামী ৬ অগস্ট অনুষ্ঠিত হতে চলেছে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন। ৫ জুলাই উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। ১৯ জুলাই প্রার্থীদের মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। মনোনয়ন পরীক্ষা হবে ২০ জুলাই। আর ২২ জুলাই মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন। জুলাইয়ের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যেই এনডিএ জোট উপরাষ্ট্রপতি পদে নাম ঘোষণা করতে পারে। প্রসঙ্গত, বর্তমান উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ডুর মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১০ অগস্ট।

Advertisement

পঞ্জাব কংগ্রেস অন্তর্দ্বন্দ্বের জেরে গত বছরের সেপ্টেম্বর মুখ্যমন্ত্রিত্ব থেকে অমরেন্দ্রকে সরিয়েছিল দলের শীর্ষনেতৃত্ব। এর মাস দু’য়েক পর কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধীকে সাত পাতার চিঠি লিখে দল ছাড়ার ঘোষণা করেন তিনি। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে পঞ্জাবের বিধানসভা ভোটের আগের নয়া দল ‘পঞ্জাব লোক কংগ্রেস’ গড়ে বিজেপির সঙ্গে আসন সমঝোতা করেছিলেন। কিন্তু বিধানসভা ভোটে একটি আসনেও জিততে পারেনি তাঁর দল। এমনকি, পটীয়ালার রাজ পরিবারের সন্তান অমরেন্দ্র তাঁর পুরনো আসনে হেরে গিয়েছিলেন।

শিরোমণি অকালি দলের সঙ্গে জোট ভেঙে যাওয়ার পরে পঞ্জাবে দলীয় সংগঠন শক্তিশালী করতে সক্রিয় হয়েছে বিজেপি। ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনকে ‘পাখির চোখ’ করে ইতিমধ্যেই কংগ্রেস, অকালি দলের বেশ কয়েক জন নেতাকে দলে টেনেছে তারা। প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সুনীল ঝাখর, প্রাক্তন মন্ত্রী বলবীর সিংহ সিধু, গুরপ্রীত সিংহের মতো অমরেন্দ্র-ঘনিষ্ঠেরা রয়েছে সেই তালিকায়।

প্রায় সাড়ে পাঁচ দশকের বর্ণময় রাজনৈতিক জীবনে আগেও দলবদল করেছেন অমরেন্দ্র। আশির দশকে ইন্দিরা গাঁধী অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরে সেনা অভিযানের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে প্রতিবাদ জানিয়ে কংগ্রেস ছেড়েছিলেন এই প্রাক্তন সেনা অফিসার। যোগ দিয়েছিলেন শিরোমণি অকালি দলে। তবে কয়েক বছর পরে ফের কংগ্রেসে ফিরেছিলেন। ২০১৪-র লোকসভা ভোটে পঞ্জাবের ১৩টি লোকসভা আসনের মধ্যে মাত্র তিনটিতে জিতেছিল কংগ্রেস। কিন্তু তারই মধ্যে অমৃতসরে বিজেপি-র হেভিওয়েট প্রার্থী অরুণ জেটলিকে হারিয়েছিলেন অমরেন্দ্র। এ বার সেই বিজেপির সমর্থনেই উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে লড়তে পারেন তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement