×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১০ মে ২০২১ ই-পেপার

লাদাখে উত্তপ্ত আবহের মধ্যেই তিন চিনা নাগরিককে উদ্ধার করে ফেরত পাঠাল সেনা

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৭:৪৮
উদ্ধার হওয়া চিনা নাগরিকদের খাবার দিচ্ছেন এক জওয়ান। ছবি সৌজন্য টুইটার।

উদ্ধার হওয়া চিনা নাগরিকদের খাবার দিচ্ছেন এক জওয়ান। ছবি সৌজন্য টুইটার।

অরুণাচল প্রদেশে যখন পাঁচ ভারতীয় নাগরিককে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে চিনা সেনার বিরুদ্ধে, তার ঠিক উল্টো ছবিটাই ধরা পড়ল সিকিমে। পথ হারিয়ে যাওয়া তিন চিনা নাগরিককে উদ্ধার করে তাঁদের নিরাপদে ফেরত পাঠাল ভারতীয় সেনা

সেনা সূত্রে খবর, সাড়ে ১৭ হাজার ফুট উচ্চতায় উত্তর সিকিমের পাহাড়ি এলাকায় দিকভ্রষ্ট হন চিনা নাগরিকদের একটি দল। দলে দু’জন পুরুষ এবং এক জন মহিলা ছিলেন। পাহাড়ি এলাকার দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে দিকভ্রষ্ট হন ওই তিন চিনা নাগরিক। হিমশীতল ঠান্ডায় অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তাঁরা।

টহলদারি চালানোর সময় চিনা নাগরিকরা সেনার নজরে পড়ে। তাঁদের পরিচয় জানার পর উদ্ধার করে নিয়ে যান জওয়ানরা। এর পর ওই তিন জনকে খাবার, গরম পোশাক এবং অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে সহযোগিতা করেন তাঁরা।

Advertisement

সেনা সূত্রে আরও জানানো হয়েছে, চিনা নাগরিকদের বিগড়ে যাওয়া গাড়িটিও ঠিক করে দেওয়া হয়। শুধু তাই নয়, তাঁরা যাতে নিরাপদে নিজেদের গন্তব্যে ফিরে যেতে পারেন তার একটি দিকনির্দেশও দিয়ে দেন জওয়ানরা। তাঁদের উদ্ধার করা এবং সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য ভারতীয় সেনাকে কৃতজ্ঞতা জানান ওই তিন চিনা নাগরিক।

লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (এলএসি)-য় দু’দেশের মধ্যে ফের উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। সীমান্তে উত্তেজনা কমানোর জন্য দফায় দফায় বৈঠক হয়েছে দু’দেশের মধ্যে। কিন্তু এখনও কোনও সমাধানসূত্র বেরোয়নি।

মস্কোয় দু’দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের বৈঠক হয় শুক্রবার। কিন্তু তার পরেও ভারত ও চিনের সীমান্ত বিরোধ মেটার কোনও ইঙ্গিত মেলেনি। পূর্ব লাদাখের পরিস্থিতির জন্য চিনা সরকার পাল্টা ভারতকেই দোষী সাব্যস্ত করেছে। সঙ্গে হুঁশিয়ারি দিয়েছে, এক ইঞ্চিও জমি ছাড়বে না তারা।

আরও পড়ুন: অরুণাচলে পাঁচ যুবককে চিনা বাহিনীর অপহরণের অভিযোগ

Advertisement