Advertisement
২৩ জুন ২০২৪
Operation Lotus

কর্নাটকে ‘অপারেশন পদ্ম’? বিজেপির ৫০ কোটি করে টোপ কংগ্রেস বিধায়কদের, অভিযোগ সিদ্দারামাইয়ার

গত অক্টোবরে কর্নাটকের উপমুখ্যমন্ত্রী ডিকে শিবকুমার দাবি করেছিলেন, সরকার ফেলতে বিজেপির ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে তিনি এবং মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া ওয়াকিবহাল।

সিদ্দারামাইয়া।

সিদ্দারামাইয়া। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ০৯:৩৬
Share: Save:

তাঁর সরকারকে ফেলতে বিধায়ক কেনাবেচার চেষ্টা শুরু করেছে বিজেপি। লোকসভা ভোটের আগে এই অভিযোগ তুললেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়া। শনিবার তিনি বলেন, ‘‘কর্নাটকে বার ‘অপারেশন পদ্ম’ শুরু হয়েছে। আমাদের দলের কয়েক জন বিধায়কের কাছে দল বদলের জন্য বিজেপির তরফে ৫০ কোটি টাকা করে দেওয়ার প্রস্তাব এসেছে।’’

সিদ্দারামাইয়া ‘ইন্ডিয়া টুডে’কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে ওই মন্তব্যের পর জানিয়েছেন, অতীতেও বিধায়ক কেনাবেচা করে কর্নাটকে ক্ষমতা দখলের নজির রয়েছে বিজেপির। প্রসঙ্গত, গত অক্টোবরে কর্নাটকের উপমুখ্যমন্ত্রী ডিকে শিবকুমার দাবি করেছিলেন, সরকার ফেলতে বিজেপির ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে তিনি এবং মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া ওয়াকিবহাল। এর পরেই কংগ্রেসের প্রথম বারের বিধায়ক রবিকুমার গৌড়া দাবি করেন, শাসক দলের বিধায়কদের একাংশের সঙ্গে যোগাযোগ করে ৫০ কোটি টাকা আর মন্ত্রিত্বের ‘টোপ’ দেওয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, কর্নাটকেই প্রথম ‘অপারেশন পদ্ম’ শব্দবন্ধ চালু হয়েছিল। ২০০৮ সালে। সে বার সংখ্যালঘু সরকার বাঁচাতে বিধায়ক কেনাবেচা করেছিলেন বিজেপির তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা। এমনকি, দলত্যাগ বিরোধী আইনের অপপ্রয়োগ করার অভিযোগে কর্নাটক বিধানসভার তৎকালীন স্পিকার কেজি বোপাইয়াকে ভর্ৎসনা করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। ২০১৯ সালেও আবার প্রকাশ্যে এসেছিল ‘অপারেশন পদ্ম’। ১৭ জন বিধায়ককে ভাঙিয়ে জেডিএস-কংগ্রেস সরকার ফেলে বিজেপি কর্নাটকের ক্ষমতা দখল করে। সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন রাজ্যে বিজেপি-বিরোধী দলের সরকার ফেলার ঘটনা বা সেই চেষ্টার অভিযোগে ‘অপারেশন পদ্ম’ কথাটি ফিরে ফিরে এসেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE