×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৬ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

অক্টোবরে ধর্মস্থান বন্ধ ওড়িশায়, পুজোয় কি পুরীর মন্দির খোলা

সংবাদ সংস্থা
ভুবনেশ্বর ০২ অক্টোবর ২০২০ ১৯:১০
জগন্নাথ মন্দির। ফাইল চিত্র।

জগন্নাথ মন্দির। ফাইল চিত্র।

অক্টোবরে কোনও ধর্মস্থান খোলা যাবে না ওড়িশায়। আনলক ৫ পর্বেও সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সিনেমাহল এবং ধর্মীয় স্থান না খোলার সিদ্ধান্ত শুক্রবার জানিয়ে দিল নবীন পট্টনায়েক সরকার। ধর্মস্থানের মধ্যে কি পুরীর মন্দির পড়ছে? এ দিন প্রকাশিত রাজ্য সরকারের গাইডলাইনে পুরীর মন্দির নিয়ে আলাদা করে কিছু বলা হয়নি। তবে সব ধর্মীয় স্থানই বন্ধ থাকার কথা বলায় পুরীর মন্দির নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, পুজোর সময় ভক্তদের জন্য খোলা থাকবে না পুরীর মন্দিরের দরজা। প্রসঙ্গত, অধুনা পশ্চিমবঙ্গে জগন্নাথদেবের ভক্তসংখ্যা ক্রমবর্ধমান। শেষপর্যন্ত পুজোর সময় পুরীর মন্দির খোলা না থাকলে তাঁরা নিঃসন্দেহে মুষড়ে পড়বেন।

করোনা পরিস্থিতির জন্য এবার ওড়িশার ‌প্রধান উৎসব পুরীর রথযাত্রায় ভক্তরা যোগ দিতে পারেননি। শুধুই পরম্পরা বজায় রাখতে একেবারে শেষ মুহূর্তে শর্তসাপেক্ষে রথযাত্রার অনুমতি দেয় সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু সেখানে ভক্ত সমাগম হয়নি। এবার পুজোর ছুটিতেও পুরী ভ্রমণের পরিকল্পনা বাতিল করতে হতে পারে পুণ্যার্থীদের।

উল্লেখ্য, গত ২৯ সেপ্টেম্বরই জানা যায়, পুরীর মন্দিরের ৪০৪ জন সেবায়েতের মধ্যে ৩৫১ জনই করোনা আক্রান্ত। রুটিন পরীক্ষায় ৫৩ জন মন্দির কর্মীর রিপোর্টও পজিটিভ আসে।

Advertisement

আরও পড়ুন: পুজোয় ২০০ স্পেশাল ট্রেন, প্রস্তুতি শুরু রেলের

আরও পড়ুন: দুধের এটিএম, ২৪ ঘণ্টাই চালু ‘কাম ধেনু’​

ওড়িশা সরকারের এ দিনের গাইডলাইনে বলা হয়েছে, রাজ্যের সব স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের সঙ্গে সঙ্গে সব ধর্মীয়স্থান এবং সিনেমাহল আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। যদিও কেন্দ্রের তরফে দেওয়া আনলক ৫-এর গাইডলাইনে কিছু বিধিনিষেধ মেনে এ সব ক্ষেত্রের কয়েকটি রাজ্য সরকার চাইলে খুলতেও পারে বলে জানানো হয়েছিল। কিন্তু নবীন সরকারের গাইডলাইন বলছে, তারা অন্তত এখনও পর্যন্ত কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছে না।

এদিন ওড়িশার স্পেশাল রিলিফ কমিশনারের নির্দেশে বলা হয়েছে, অক্টোবর মাসে সব রকমের সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয়, ক্রীড়া, বিনোদন, শিক্ষা সংক্রান্ত অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে রাজ্যে। ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়ে ১৫ অক্টোবর থেকে সিনেমাহল খোলা যেতে পারে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। কিন্তু ওড়িশায় সেই অনুমতিও দিচ্ছে না সরকার। একই সঙ্গে সুইমিং পুল, থিয়েটার, অডিটোরিয়াম বা অনেক মানুষের জমায়েত হওয়ার ‌মতো জায়গা অক্টোবরে বন্ধ থাকবে বলেই জানানো হয়েছে। তবে সরকার পরিচালিত সুইমিং পুলে ১৫ অক্টোবর থেকে কেন্দ্রীয় ক্রীড়া ও যুব কল্যাণ মন্ত্রকের বিধিনিষেধ মেনে প্রশিক্ষণ চলতে পারে।

Advertisement