Advertisement
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
IT Notice

সাড়ে ১২ কোটির ‘লেনদেন’! মুদিখানার মালিককে নোটিস আয়কর দফতরের

আয়কর দফতরের পাঠানো নোটিসে উল্লেখ রয়েছে যে, কিষাণগোপালের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে সম্প্রতি ১২ কোটি ২৩ লক্ষ টাকার লেনদেন হয়েছে। এই নোটিস দেখে হতবাক হয়ে যান কিষাণগোপাল।

Physically challenged shop owner got IT Notice for 12.23 crore transaction.

কিষাণগোপালের দাবি, তাঁর প্যান কার্ডের অপব্যবহার করে কেউ এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
জয়পুর শেষ আপডেট: ০৬ এপ্রিল ২০২৩ ১৫:০২
Share: Save:

প্রায় সাড়ে ১২ কোটির লেনদেনের অভিযোগে রাজস্থানের ভিলওয়ারার সঞ্জয় নগরের বাসিন্দা এক প্রতিবন্ধীকে নোটিস পাঠাল রাজ্যের আয়কর দফতর। যদিও পেশায় মুদিখানার মালিক ওই যুবকের দাবি, তিনি কোনও লেনদেন করেননি। ওই দোকান মালিকের নাম কিষাণগোপাল চাপারওয়াল। গত ২৮ মার্চ আয়কর দফতরের তরফে এই নোটিস পাঠানো হয়।

আয়কর দফতরের পাঠানো নোটিসে উল্লেখ রয়েছে যে, কিষাণগোপালের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে সম্প্রতি ১২ কোটি ২৩ লক্ষ টাকার লেনদেন হয়েছে। এই নোটিস দেখে হতবাক হয়ে যান কিষাণগোপাল। নিজে কয়েক দিন খোঁজখবর চালিয়ে অবশেষে নোটিস হাতে সুভাষ নগর থানায় অভিযোগ জানাতে ছোটেন তিনি।

কিষাণগোপালের দাবি, তাঁর প্যান কার্ডের অপব্যবহার করে কেউ এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন। যার দোষ এসে পড়েছে তাঁর ঘাড়ে।

তিনি জানান, এক জন চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টের সঙ্গে কথা বলে তিনি জানতে পেরেছেন, তাঁর অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে মুম্বই এবং সুরতের দু’টি ভুয়ো কোম্পানিতে কয়েক কোটি টাকার লেনদেন করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘আমি লোন নিয়ে দোকান খুলেছি। ঠিক মতো কিস্তিও দিতে পারি না। আমি প্রতি মাসে ৮ থেকে ১০ হাজার টাকা আয় করি। এই ভুয়ো কোম্পানিগুলির সঙ্গে আমার কোনও সম্পর্ক নেই। কিছু প্রতারক এই কাজ করেছে।’’

কিষাণগোপালের অভিযোগের ভিত্তিতে সুভাষ নগর পুলিশ পুরো ঘটনার সত্যাসত্য যাচাই করতে তদন্ত শুরু করেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE