Advertisement
০৪ অক্টোবর ২০২২
Prashant Kishor

স্ট্যালিনের শপথে চেন্নাই  যাচ্ছেন অভিষেক, পিকে

জাতীয় রাজনীতিতে বিরোধী ঐক্য গঠনের উদ্যোগে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সর্বদাই সংযোগ রেখে চলেন স্ট্যালিন।

—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ মে ২০২১ ০৭:২৩
Share: Save:

বাংলায় বিজেপিকে ভোটে হারানোর দুই ‘নেপথ্য কারিগর’ তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর আজ শুক্রবার বিজেপিকে হারিয়ে দেওয়া আর এক রাজ্য তামিলনাড়ুতে ডিএমকে সরকারের শপথ অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন।

তামিলনাড়ুতে বিজেপির অবস্থা এ রাজ্যের থেকেও অনেক করুণ। সেখানে ২৩৪ আসনের মধ্যে তারা পেয়েছে মাত্র ৪ টি। স্ট্যালিনের নেতৃত্বে ডিএমকে ১৩৩ আসন পেয়ে সরকার গড়ছে। প্রধান বিরোধী দল হিসেবে এডিএমকে পেয়েছে ৬৬।

জাতীয় রাজনীতিতে বিরোধী ঐক্য গঠনের উদ্যোগে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সর্বদাই সংযোগ রেখে চলেন স্ট্যালিন। আবার এই বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটকুশলী হওয়ার পাশাপাশি স্ট্যালিনকেও পরামর্শ দিয়েছেন পিকে। ফলে তামিলনাড়ুর শপথে অভিষেক ও পিকের যোগদান বাংলার রাজনীতির পক্ষেও মমতার দিক থেকেও একটি অর্থবহ ইঙ্গিত।

এই রাজ্যে এ বার করোনার কারণে মমতা শপথ নিয়েছেন অনাড়ম্বর ভাবে। তিনি ঠিক করেছেন কোভিড পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে ২১ জুলাই ব্রিগেডে বিজয় সমাবেশ করবে তৃণমূল। সেখানে বিরোধী দলগুলির নেতাদের ডাকা হবে। অনেকের মতে, ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনকে রেখে সেই সমাবেশ হতে পারে বিরোধী জোট করার প্রাথমিক ধাপ।

অন্য দিকে অভিষেক এ বার তৃণমূলের জয়ের পিছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় থাকলেও এখনই মন্ত্রী হতে চান না। আনন্দবাজারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, অন্যান্য রাজ্যে তৃণমূলের সংগঠন গড়ে তোলাই হবে তাঁর আগামী লক্ষ্য।

এই অবস্থায় তামিলনাড়ুতে স্ট্যালিনের শপথে গিয়ে সেখানে মমতার প্রতিনিধি হিসেবে অভিষেক ‘বন্ধু দল’ হিসেবে তৃণমূলের সংগঠন বিস্তারের বীজ বপন করার কাজ শুরু করবেন কি না, সে দিকেও পর্যবেক্ষকদের নজর আছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.