Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

পর পর রাজ্যে মোদী-শাহ? জোড়া ধামাকার আশায় বাংলার গেরুয়া শিবির

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৭:২৪


গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

এক দিনের সফরে গত বৃহস্পতিবার রাজ্যে এসে একগুচ্ছ কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। রাজ্য বিজেপি সূত্রে খবর, ফের তিনি আসছেন আগামী বৃহস্পতিবার। আবার ওই দিনই রাজ্যে আসতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যদিও রাজ্য বিজেপি-র একটি সূত্র বলছে, মোদী আসতে পারেন ২২ ফেব্রুয়ারি। তবে মোদীর এ বারের সফরও মূলত সরকারি কর্মসূচিতে যোগ দেওয়া। যদিও গত ৭ ফেব্রুয়ারি সরকারি কর্মসূচিতে হলদিয়ায় এলেও রাজনৈতিক সমাবেশেও যোগ দিয়ে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘রামকার্ড’ দেখানোর বার্তা দিয়ে গিয়েছেন। আগামী বৃহস্পতিবারও তিনি রাজ্যে এলে কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দেবেন কি না, তা এখনও নিশ্চিত নয়। সূত্রের খবর, ওই দিন মোদী নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রোপথের উদ্বোধন করবেন। সে দিন তিনি হুগলিতে চুঁচুড়া বিধানসভা এলাকায় একটি সমাবেশ করতে পারেন। তবে অমিত শাহ এলে তা পুরোপুরি রাজনৈতিক কর্মসূচিই হবে।

রাজ্য বিজেপি-র উদ্যোগে ইতিমধ্যেই চারটি ‘পরিবর্তন যাত্রা’র সূচনা হয়েছে। প্রথম তিনটির যাত্রা যথাক্রমে নবদ্বীপ, তারাপীঠ ও ঝাড়গ্রাম থেকে সূচনা করেছেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা। এখন বাকি রয়েছে কলকাতা জোনের যাত্রা। রাজ্য বিজেপি সূত্রে খবর, আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি সেই রথযাত্রা শুরু হবে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগর থেকে। তবে আনুষ্ঠানিক সূচনা হবে কাকদ্বীপে। আর সেখানেই অমিতের হাজির থাকার কথা। একই সঙ্গে কয়েকটি রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দিতে পারেন তিনি।

রাজ্য বিজেপি অনেক আগেই জানিয়েছিল, বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসবে তত ঘন ঘন নড্ডা, শাহ, মোদীরা বাংলায় আসবেন। গত কয়েক মাসে বেশ কয়েক বার এসেছেন নড্ডা ও অমিত। মোদী কলকাতায় এসেছিলেন ২৩ জানুয়ারি নেতাজি জয়ন্তীর অনুষ্ঠানে। ৭ ফেব্রুয়ারি এসেছিলেন হলদিয়ায়। এর পরে এক মাস সময়ে তৃতীয় সফর হতে চলেছে।

Advertisement

বিজেপি সূত্রের খবর, এই সফরে নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রোপথের উদ্বোধন করতে পারেন মোদী। রাজ্য বিজেপি চায়, বিধানসভা নির্বাচনের দিন ক্ষণ কমিশন ঘোষণা করার আগেই এই মেট্রোপথের সূচনা হোক। মেট্রো রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই ওই অংশের কাজ শেষ হয়েছে। উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রীর আসার কথা। তবে কবে উদ্বোধন হবে এবং সেখানে প্রধানমন্ত্রী আসবেন কি না তা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। ওই দিন মোদী এলে জলশক্তি মন্ত্রকের একটি অনুষ্ঠানেও যোগ দিতে পারেন।

মোদীর কর্মসূচি চূড়ান্ত না হলেও ১৮ তারিখ অমিতের আসার ব্যাপারে প্রায় নিশ্চিত রাজ্য বিজেপি। এই প্রসঙ্গে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘১৮ ফেব্রুয়ারি অমিত‍জি আসবেন বলেই ঠিক আছে। তিনি কলকাতা জোনের পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করবেন বলেই ঠিক আছে। তবে বাকি কর্মসূচি কিছু ঠিক হয়নি।’’

প্রসঙ্গত, গত ৩০ ও ৩১ জানুয়ারি অমিতের রাজ্য সফর দিল্লিতে বিস্ফোরণের কারণে শেষ মুহূর্তে বাতিল হয়ে গিয়েছিল। তাই সফরসূচি চূড়ান্ত হওয়ার আগে কোথায় কোথায় জনসভা বা রোড শো হতে পারে তা নিয়ে এখনই কিছু জানাতে চাইছেন রাজ্য বিজেপি-র নেতারা। তবে তার প্রস্তুতি ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে।

বিজেপি সূত্রে খবর, এ বার অমিত দক্ষিণ ২৪ পরগনার পাশাপাশি হুগলি জেলার কোনও কর্মসূচিতে যোগ দিতে পারেন। ইতিমধ্যেই বাংলায় এসে বীরভূম, পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ২৪ পরগনা, কোচবিহারে সমাবেশ করেছেন অমিত। হাওড়ায় আসতে না পারলেও ডুমুরজলার সভায় ভার্চুয়াল বক্তব্য রেখেছেন। দক্ষিণ ২৪ পরগনা, বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, নদিয়া, বীরভূমে সফর হয়েছে নড্ডার। মোদী এসেছেন পূর্ব মেদিনীপুরে। রাজ্য বিজেপি চায় এ বার দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপে রথের সূচনার পরে হুগলির সিঙ্গুরে সমাবেশ করুন অমিত। তবে সবটাই নির্ভর করছে চূড়ান্ত সফরসূচি তৈরি হওয়ার উপর।

আরও পড়ুন

Advertisement