Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Rajasthan Crisis

রাজস্থান: ‘২১ দিনের নোটিস প্রয়োজন’, গহলৌতের প্রস্তাব ফেরালেন রাজ্যপাল

বিধানসভার অধিবেশন ডাকার আগে ২১ দিনের নোটিস দিতে ঙবে বলে জানিয়েছেন রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র।

রাজস্থানে টানাপড়েন চরমে। অশোক গহলৌতের বিধানসভা অধিবেশন ডাকার প্রস্তাব ফেরালেন রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র।

রাজস্থানে টানাপড়েন চরমে। অশোক গহলৌতের বিধানসভা অধিবেশন ডাকার প্রস্তাব ফেরালেন রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র।

সংবাদ সংস্থা
জয়পুর শেষ আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২০ ১৪:১৪
Share: Save:

রাজস্থানে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত এবং রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্রের মধ্যে সঙ্ঘাত ক্রমশ ঘোরাল হচ্ছে। শুক্রবার থেকে বিধানসভার অধিবেশন শুরু করতে চান বলে গতকালই রাজ্যপালের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়েছিলেন গহলৌত। কিন্তু বুধবার সকালে ফাইলবন্দি সেই প্রস্তাব ফেরত পাঠিয়েছেন রাজ্যপাল। সেই সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছেন, বিধানসভার অধিবেশন ডাকার আগে ২১ দিনের নোটিস দেওয়া প্রয়োজন। করোনা পরিস্থিতি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। এই নিয়ে তৃতীয়বার বিধানসভার অধিবেশন ডাকার প্রস্তাব ফেরালেন রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র।

তাতে এ দিন ফের রাজভবনে ছুটে গিয়েছেন গহলৌত। সেখানে রাজ্যপালের সঙ্গে গত এক মাসে এই নিয়ে চতুর্থ বার বৈঠক করেন তিনি। রাজভবনে ঢোকার মুখে সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘‘আসলে উনি কী চান, তা জানতে যাচ্ছি। ২১ দিনের নোটিস চান বা ৩১ দিনের, শেষমেশ আমরাই বিজয়ী হব।’’

বিধানসভার অধিবেশন ডাকা নিয়ে রাজ্যপালের অপারগতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন প্রদেশ কংগ্রেসের প্রধান হুইপ মহেশ জোশী। তিনি বলেন, ‘‘বিধানসভার অধিবেশন ডাকায় আপত্তি করছেন কেন রাজ্যপাল? আসলে করোনা কোনও ইস্যুই নয়। বরং রাজস্থানে সুস্থতার হার বেশ ভাল। আর আস্থাভোটেরই বা কী দরকার। আমরাই সংখ্যাগরিষ্ঠ। এ ব্যাপারে সন্দেহ থাকলে রাজ্যপাল আস্থাভোটের নির্দেশ দিলেই পারেন! তা না করে রাজ্যপাল এমন সব প্রশ্ন করছেন, যা ওঁর এক্তিয়ারের মধ্যেই পড়ে না। আমাদের পক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠের সমর্থন রয়েছে। এ কথা একাধিক বার রাজ্যপালকে জানানো হয়েছে।’’

আরও পড়ুন: বিকেলেই পৌঁছবে ৫টি রাফাল, চূড়ান্ত তৎপরতা অম্বালা ঘাঁটিতে, জারি ১৪৪ ধারা​

আরও পড়ুন: ‘নিজেকে রাজা মনে করছেন চিনফিং, ফলে আরও আগ্রাসী হয়ে উঠছে চিন’​

সচিন পাইলট ও তাঁ অনুগামীরা গহলৌত সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করার পর থেকেই গত এক মাস রাজ্য সরকার ও রাজ্যপালের মধ্যে টানাপড়েন চলছে। আস্থাভোটে ক্ষমতার প্রমাণ দিতে লাগাতার বিধানসভা অধিবেশন ডাকার প্রস্তাব দিয়ে আসছে গহলৌত শিবির। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাদের সেই প্রস্তাবে অনুমোদন দেননি রাজ্যপাল। বরং সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী গহলৌতকে লেখা চিঠিতে অধিবেশন ডাকা নিয়ে তিনটি প্রশ্ন তোলেন তিনি। জানতে চান, বিধানসভার কর্মসূচি কী এবং অধিবেশনে মুখ্যমন্ত্রী সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে চান কি না। অধিবেশন ডাকা হলে, করোনা আবহে কী স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হবে, তা-ও জানতে চান।

একই সঙ্গে অধিবেশন ডাকার আগে বিধায়কদের ২১ দিনের নোটিস দেওয়া যায় কি না, তা-ও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে জানতে চান কলরাজ মিশ্র। তা নিয়ে মঙ্গলবার মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর তাঁকে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, বিধানসভার কর্মসূচি বিধানসভার কার্য উপদেষ্টা কমিটি ঠিক করবে। স্বাস্থ্যবিধি কী ভাবে মেন চলা হবে, তা ঠিক করবেন স্পিকার। নোটিস দেওয়ার রাস্তায় না গিয়ে, ৩১ জুলাই অর্থাৎ চলতি সপ্তাহের শুক্রবার থেকেই রাজ্য সরকার বিধানসভার অধিবেশন ডাকতে চায় বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু তাতেই এ দিন বাদ সেধেছেন কলরাজ মিশ্র।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE