Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
Pawar Names Praful Patel

বাদ ভাইপো অজিত! কন্যা সুপ্রিয়া এবং প্রফুল পটেলকে এনসিপির কার্যকরী সভাপতি ঘোষণা পওয়ারের

শরদের ভাইপো অজিত পওয়ারের নাম নেই কোথাও। মেয়ে সুপ্রিয়া এবং দীর্ঘ দিনের ছায়াসঙ্গী প্রফুল পটেলের হাতেই এনসিপি তুলে দিতে চলেছেন শরদ পওয়ার। শনিবার সেই ইঙ্গিতই স্পষ্ট হল।

File image of NCP Leader Sharad Pwar and Daughter Supriya Sule

এনসিপি সাংসদ সুপ্রিয়া সুলে এবং শরদ পওয়ার (বাঁ দিক থেকে)। — ফাইল ছবি।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
মুম্বই শেষ আপডেট: ১০ জুন ২০২৩ ১৭:২৯
Share: Save:

এনসিপিতে শরদ পওয়ারের পর কে? এই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিলেন খোদ পওয়ারই। শনিবার কন্যা সুপ্রিয়া সুলে এবং প্রফুল পটেলকে দলের কার্যকরী সভাপতি হিসাবে ঘোষণা করলেন। দলের ২৫তম জন্মদিবসের দিনই পওয়ারের এই ঘোষণা। ১৯৯৯ সালে পিএ সাংমার সঙ্গে মিলে এনসিপি তৈরি করেছিলেন পওয়ার। তাৎপর্যপূর্ণ ব্যাপার হল, নতুন রদবদলে জায়গা হল না অজিত পওয়ারের।

ভারতের রাজনীতিতে ক্ষুরধার মস্তিষ্কের জন্য তাঁর পরিচিতি। দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পর্যন্ত তাঁর রাজনৈতিক প্রজ্ঞার গুণমুগ্ধ। এনসিপি প্রধান পওয়ার আবার ‘খেলা’ দেখালেন। শনিবার, দলের ২৫তম জন্মদিবসে পওয়ার ঘোষণা করলেন, তাঁর পরে দলের ভার যাবে কাদের হাতে। দেখা গেল, ভাইপো অজিতের নামগন্ধ নেই। কার্যকরী সভাপতির পদ পেয়েছেন মেয়ে সুপ্রিয়া এবং প্রফুল পটেল। জানা গিয়েছে, পওয়ার আপাতত এনসিপি সভাপতি পদেই থাকবেন। তাঁকে সভাপতিত্বে সহায়তা দেবেন সুপ্রিয়া এবং প্রফুল।

এনসিপি সূত্রে খবর, সাংসদ সুপ্রিয়া দেখভাল করবেন মহারাষ্ট্র, হরিয়ানা, পঞ্জাব। এ ছাড়াও মহিলা, যুব সংক্রান্ত সমস্ত ব্যাপার তিনি দেখবেন। সেই সঙ্গে লোকসভার হালচালও দেখভালের ভার সুপ্রিয়ার উপর। অন্য দিকে প্রফুলের ভাগে পড়ছে মধ্যপ্রদেশ, গুজরাত, রাজস্থান, ঝাড়খণ্ড, গোয়া। এ ছাড়া রাজ্যসভায় এনসিপির গতিবিধিও রয়েছে তাঁরই আওতায়।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের দাবি, পওয়ারের সিদ্ধান্তে একটা ব্যাপার পরিষ্কার, অজিত পওয়ারকে তাঁর উত্তরাধিকারী হিসাবে ভাবছেন না। আর তাই ভাইপোর জায়গা হয়নি কার্যকরী সভাপতির আসনে। অজিত বরাবরই রাজ্য রাজনীতির লোক। জাতীয় বিষয়ে বিশেষ উৎসাহ দেখতে পাওয়া যায়নি। কিন্তু অজিত যে মহারাষ্ট্রে রাজনীতি করেন, সেই রাজ্যের ভার চলে গিয়েছে বোন সুপ্রিয়ার হাতে। এনসিপি নেতাদের একটি অংশের দাবি, এই সিদ্ধান্তের মধ্যে দিয়েই সম্ভবত পওয়ার বুঝিয়ে দিলেন, অজিতের স্থান ঠিক কোথায়।

যদিও এই সিদ্ধান্ত প্রকাশ্যে আসার পর টুইট করে নবনিযুক্ত দুই কার্যকরী সভাপতিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন অজিত। টুইটে তিনি লিখেছেন, সুপ্রিয়া এবং প্রফুলের যোগ্য নেতৃত্বে এনসিপি এগিয়ে যাবে। এই প্রেক্ষিতে অনেকের মনে পড়ে যাচ্ছে ২০১৯ সালের কথা। সে বার বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে উপমুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথগ্রহণ পর্যন্ত করে ফেলেছিলেন অজিত। মহারাষ্ট্রের রাজভবনে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে সে দিন শপথ নিয়েছিলেন দেবেন্দ্র ফডণবীস। তার পর মহারাষ্ট্রের রাজনীতিতে অনেক বদল এসেছে। কিন্তু সেই ‘বিশ্বাসঘাতকতা’কে যে পওয়ার ভোলেননি, শনিবারের সিদ্ধান্ত তা-ই আরও এক বার স্পষ্ট করে দিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE