×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

যৌন সম্পর্কের বদলে বেশি নম্বরের প্রস্তাব! বছরখানেক পর জামিন অভিযুক্ত অধ্যাপিকার

সংবাদ সংস্থা
মাদুরাই ১৩ মার্চ ২০১৯ ১৩:৫৫
তামিলনাড়ুতে শোরগোল ফেলে দেওয়া যৌন কেলেঙ্কারি মামলায় প্রধান অভিযুক্ত নির্মলা দেবী। ছবি: সংগৃহীত।

তামিলনাড়ুতে শোরগোল ফেলে দেওয়া যৌন কেলেঙ্কারি মামলায় প্রধান অভিযুক্ত নির্মলা দেবী। ছবি: সংগৃহীত।

পরীক্ষায় বেশি নম্বর মিলবে। উপরি পাওয়া মোটা অঙ্কের টাকা। তবে তা মিলবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে যৌন সম্পর্কের বিনিময়ে। কলেজপড়ুয়া ছাত্রীদের এমন প্রলোভন দেখানোর অভিযোগ উঠেছিল তামিলনাড়ুর এক সরকারি কলেজের অধ্যাপিকার বিরুদ্ধে। তামিলনাড়ুতে শোরগোল ফেলে দেওয়া ওই যৌন কেলেঙ্কারি মামলায় প্রধান অভিযুক্ত নির্মলা দেবীকে শর্তসাপেক্ষে জামিন দিল মাদ্রাজ হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার হাইকোর্টের মাদুরাই বেঞ্চের বিচারপতি এন কিরুবাকরন ও বিচারপতি এস এস সুন্দরের নির্দেশ, জামিন পেলেও তদন্তের স্বার্থে সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খুলতে পারবেন না নির্মলা দেবী। পাশাপাশি, পুলিশের সঙ্গে সহযোগিতা করতে হবে তাঁকে।

গত বছরের এপ্রিলে ওই যৌন কেলেঙ্কারির বিষয়টি প্রথম প্রকাশ্যে আসে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস হয়ে যায় একটি অডিয়ো টেপ। তাতে ধরা পড়ে ওই অধ্যাপিকার সঙ্গে কলেজ পড়ুয়াদের কথাবার্তা। অডিয়ো টেপ-এ বলতে শোনা গিয়েছে, শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে ‘বিশেষ সম্পর্কের বদলে পরীক্ষায় ৮৫ শতাংশ পর্যন্ত নম্বর মিলবে’। সঙ্গে পাওয়া যাবে টাকাও। কলেজের ছাত্রীদের এমন প্রস্তাব দিচ্ছেন নির্মলা। তবে সেই প্রস্তাবে রাজি হচ্ছেন না ছাত্রীরা। এ নিয়ে নির্মলার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে চার ছাত্রী। ওই অডিয়ো টেপে তাঁর স্বর শোনা যাচ্ছে বলে স্বীকার করে নিলেও নির্মলার দাবি ছিল, বিষয়টি নিয়ে কোনও ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে।

Advertisement

ভারতের প্রথম সাধারণ নির্বাচন সম্পর্কে এই তথ্যগুলি জানেন কি?

এর পরই হইচই পড়ে যায় তামিলনাড়ুতে। বিভিন্ন নারীবাদী সংগঠন তথা বিরোধী দলের নেতারাও এ নিয়ে সরব হন। প্রাথমিক ভাবে গোটা বিষয়টি অস্বীকার করলেও চাপের মুখে নতিস্বীকার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অন্তর্তদন্তের পর সাসপেন্ড করা হয় মাদুরাই কামরাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ দেবঙ্গ আর্ট কলেজে কর্মরত নির্মলাকে। ওই কলেজের ছাত্রীদেরই এমন কুপ্রস্তাব দেওয়া হত বলে অভিযোগ। ঘটনার তদন্তে নেমে নির্মলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আরও পড়ুন: মাসুদ আজহার ‘বিশ্ব সন্ত্রাসী’, নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের আগে বলল আমেরিকা, বেসুরো চিন

আরও পড়ুন: তিনি প্রার্থী, শুনেই কেঁদে ফেললেন রূপালী

তবে তাতে রাজ্যে ক্ষোভের আগুন নেভেনি। এর পর তদন্তভার হাতে নেয় সিআইডি। নির্মলাকে জেরা করে ওই কলেজেরই আর এক সহকারী অধ্যাপক ভি মুরুগন এবং গবেষণারত ছাত্র কারুপ্পাস্বামীকে গ্রেফতার করে সিআইডি। পরে অবশ্য সুপ্রিম কোর্টে ছাড়া পেয়ে যায় ওই দুই অভিযুক্ত। নির্মলার বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় সিআইডি। তবে নিম্ন আদালতে নির্মলার দাবি ছিল, পুলিশি নিগ্রহের জেরেই বয়ান দিতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

(দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরাবাংলা খবরপেতে পড়ুন আমাদেরদেশবিভাগ।)



Tags:
Tamil Nadu Crime Sex Work Madurai Kamaraj Universityমাদুরাই কামরাজ বিশ্ববিদ্যালয়তামিলনাড়ু Social Media CID

Advertisement