Advertisement
২৯ নভেম্বর ২০২২
Durga Puja Fashion

অষ্টমীর সাজ মানেই শুধু শাড়ি নয়, ঐতিহ‍্য আর আধুনিকতার যুগলবন্দিতে হয়ে উঠুন আকর্ষণীয়

অষ্টমীর রাতের সাজ হওয়া চাই সবচেয়ে আলাদা। সকালের সাজ যদি হয় স্নিগ্ধ, রাতের সাজপোশাকে থাকুক উৎসবের ছোঁয়া। অষ্টমীতে শাড়ি পরতে ইচ্ছে না করলে বেছে নিন অন‍্য কোনও পোশাক।

অষ্টমীতে শাড়ি ছাড়াও পরতে পারেন জমকালো সালওয়ার-কুর্তা।

অষ্টমীতে শাড়ি ছাড়াও পরতে পারেন জমকালো সালওয়ার-কুর্তা। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ অক্টোবর ২০২২ ১১:০২
Share: Save:

অষ্টমীর রাত। বহু প্রতীক্ষিত সময়। উৎসবের আঁচ মধ‍্যগগনে। অষ্টমীর সাজগোজ নিয়ে অনেকেরই একটা আলাদা পরিকল্পনা থাকে। অষ্টমীর সকালে অঞ্জলি দেওয়ার একটা পর্ব থাকে। সকালের অঞ্জলিতে অনেকেই বেশি কারুকাজ করা পোশাক পরতে পছন্দ করেন না। ছিমছাম সাজগোজই নিজেকে মেলে ধরতে চান। কিন্তু অষ্টমীর রাতের সাজ হওয়া চাই সবচেয়ে আলাদা। সকালের সাজ যদি হয় স্নিগ্ধ, রাতের সাজপোশাকে থাকুক উৎসবের ছোঁয়া।

Advertisement

জিনস, টপ, স্কার্ট, সালোয়ার কামিজকে পিছনে ফেলে অনেকেরই পুজোর পোশাকে জায়গা করে শাড়ি। শাড়ি সামলানো যাঁদের ঝক্কির বলে মনে হয়, পুজোয় তাঁরাও কেমন শাড়িপ্রেমী হয়ে ওঠেন। পুজোর বাকি দিনগুলি না পরলেও অষ্টমীর সকাল-বিকেল পুজোর সাজে শাড়িকেই বেছে নেন।

অষ্টমীর দিনটিতে অনেকেরই নানা পরিকল্পনা থাকে। কেউ বন্ধুর বাড়ির বৈঠকি আড্ডায় অংশ নেবেন। কেউ সঙ্গীকে পাশে নিয়ে গোটা শহর চষে ফেলবেন। আবার কেউ পরিবারের সকলকে নিয়ে রেস্তরাঁয় খেতে যাবেন এমন পরিকল্পনাও অনেকের রয়েছে। বোঝাই যাচ্ছে, অষ্টমীর রাত জুড়ে থাকবে হইহুল্লোড়, দৌড়ঝাঁপ। সুষ্ঠু ভাবে আনন্দ করতে এমন পোশাক পরা প্রয়োজন যাতে আপনি স্বচ্ছন্দ বোধ করেন।

অষ্টমীর সাজ শাড়ি ছাড়া ভাবাই যায় না। পুজোর ভিড়ে শাড়ি সামলানোর সাহস থাকলে নিশ্চয়ই শাড়ি পরুন। শাড়িতে লাল-সাদার ছোঁয়া থাকতেই হবে তার কোনও মানে নেই। শরৎকাল হলেও গরম এখনও যায়নি। তাই বেশি ভারী নকশা করা কোনও শাড়ির বদলে পরতে পারেন হালকা কোনও শাড়ি। সে ক্ষেত্রে পরতে পারেন অরগ‍্যাঞ্জা। এ বছর পুজোয় এই ধরনের শাড়ি বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। বিভিন্ন বয়সের মানুষ বেছে নিচ্ছেন এই শাড়ি। অরগ‍্যাঞ্জো সামলানো তত কঠিন নয়। কমবয়সিরা অনায়াসে অষ্টমীর রাতের সাজে পরতে পারেন এই শাড়ি। বন্ধুদের জমায়েত কিংবা প্রেমিকের হাত ধরে পুজো প‍্যান্ডেলে— আসর মাতাবেন আপনিই।

Advertisement

এ বার পুজোয় অরগ‍্যাঞ্জোর সঙ্গে সমান তালে পাল্লা দিচ্ছে হাকোবা শাড়িও। অষ্টমীর রাতে একরঙা কোনও হাকোবা পরতেই পারেন। সঙ্গে মানানসই ব্লাউজ এবং গয়না। সুন্দর দেখাবে।

শাড়ি পরেও সকলের চেয়ে নিজেকে আলাদা দেখাতে শাড়ি পরার কায়দায় আনতে পারেন অভিনবত্ব। আটপৌরে করে শাড়ি পরার চল এখন অনেকটাই কমে এসেছে। সব শাড়ি এ ভাবে পরা যাবে না। জামদানি, বেনারসি, কাঞ্জিভরম বা সুতির কোনও শাড়ি এমন করে পরতে পারেন।

শাড়ির আলাদা একটা মাধুর্য রয়েছে। এটা যেমন ঠিক, তেমনই পুজো-পার্বণে শাড়ি একমাত্র পোশাক হতে পারে না। আপনি চাইলে অন‍্য কোনও পোশাকও পরতে পারেন। অষ্টমীর রাতের জন‍্য বেছে নিতে পারেন ঘের দেওয়া লম্বা ঝুলের আনারকলি জামা। চাইলে সঙ্গে লেগিংস আর একটা ওড়না নিয়ে নিলেই জম্পেশ সাজ তৈরি।

শাড়ি না পরতে চাইলে পরতে পারেন শারারা প‍্যান্ট আর টপ। ক্রপ টপ না পরে বেশি কারুকাজ করা কোনও টপ পরতে পারেন। মন্দ লাগবে না।

লং-স্কার্টের সঙ্গে শার্ট দিয়ে পরার একটা চল হয়েছে। কলার লাগানো একরঙা কোনও শার্টের সঙ্গে হালকা কাজ করা কোনও লং স্কার্ট পরে নিতে পারেন। সঙ্গে মানানসই কানের দুল। অষ্টমীর আড্ডার সকলের নজর থাকবে আপনারই উপর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.