Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Coronavirus: করোনার প্রতিষেধক কি প্রভাব ফেলছে ঋতুচক্রের উপরে? তবে কি টিকা নেবেন না

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৮ জুন ২০২১ ১৮:৫০
যে কোনও প্রতিষেধকেরই প্রভাব পড়ে ঋতুচক্রের উপরে, বলছেন চিকিৎসক।

যে কোনও প্রতিষেধকেরই প্রভাব পড়ে ঋতুচক্রের উপরে, বলছেন চিকিৎসক।
ফাইল চিত্র

করোনার প্রতিষেধক নিয়ে ফেরার সময়ে হয়তো হাত ব্যথা, জ্বরের বিষয়ে সতর্ক করে দেবেন অনেকে। কিন্তু ঋতুস্রাব? তার কথা কে বলবে?

বহু মহিলাই নেটমাধ্যমে সে কথা জানাচ্ছেন। টিকা নেওয়ার পরে যেন ঋতুস্রাব খানিক অনিয়মিত। করোনার প্রতিষেধকের জেরেই এমনটা হচ্ছে বলেও মত তাঁদের মধ্যে অনেকের।

কোন ধরনের সমস্যার কথা সবচেয়ে বেশি উঠে আসছে? নানা কথাই বলছেন মহিলারা। কারও বেশি হচ্ছে ঋতুস্রাব। কারও আবার স্পটিংয়ের মতো অসুবিধা। কোনও কোনও মহিলার অনেক দিন ধরে থাকছে প্রতিমাসের ঋতুস্রাব। আবার কারও ক্ষেত্রে ঋতুচক্র যেন বেশি দিনের হয়ে গিয়েছে বলে মনে হচ্ছে।

Advertisement

কোনও মহিলার ঋতুবন্ধ এগিয়েও এসেছে বলে জানা যাচ্ছে।

ব্রিটিশ কলম্বিয়ার ‘সেন্টার ফর মেনস্ট্রুয়াল সাইকেল অ্যান্ড অভিউলেশন’-এর অধ্যাপক-চিকিৎসক জেরেলিন প্রায়র বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন। বলেন, ‘‘এত জায়গার মহিলারা যখন বলছেন, তখন বিষয়টি নিয়ে চর্চা হওয়া জরুরি। তবেই সবটা বোঝা যাবে।’’

জেরেনলিন কিছু দিন আগেই একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন এ বিষয়ে। কোভিডের প্রতিষেধক নেওয়ার পরে ঋতুচক্রে যে সব পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাচ্ছে, তার সঙ্গে শরীরের উপরে কাঁদানি গ্যাসের প্রভাবের কতটা মিল, সে সব কথা উল্লেখ করেছেন তিনি।

সম্প্রতি নেটমাধ্যমে একটি সমীক্ষা চালিয়েছেন জেরেলিন। সেখানে ২২০০০ মহিলা তাঁর প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। তার পরেই অধ্যাপক-চিকিৎসকের বক্তব্য, ‘‘মনে হচ্ছে এমনটা সত্যিই ঘটছে।’’ তবে সরাসরি করোনার প্রতিষেধকের জন্যই এমন হচ্ছে কি? নাকি এর কারণ অন্য কিছুও হতে পারে, তা গবেষণার পরেই বলা সম্ভব বলে মত জেরেলিনের।

তবে চিকিৎসক তালি বগলারের মত আবার কিছুটা অন্য রকম। বলছেন, ‘‘যে কোনও প্রতিষেধকেরই প্রভাব পড়ে ঋতুচক্রের উপরে।’’ অর্থাৎ, এ নতুন ঘটনা নয়।

কোনও কোনও মহিলার অনেক দিন ধরে থাকছে প্রতিমাসের ঋতুস্রাব।

কোনও কোনও মহিলার অনেক দিন ধরে থাকছে প্রতিমাসের ঋতুস্রাব।
ফাইল চিত্র


টরোন্টোর সেন্ট মাইকেল হাসপাতালের চিকিৎসক তালির বক্তব্য, এ বিষয়ে আগে সে ভাবে গবেষণা হয়নি। তাই বেশির ভাগের কাছেই এ কথা অজানা।

তবে যে কোনও বড় ঘটনাই ঋতুচক্রের উপরে প্রভাব ফেলে। তাই এখনই করোনার প্রতিষেধককে কারণ হিসেবে ধরে নিতে রাজি নন চিকিৎসকেরা। তাঁদের বক্তব্য, এ নিয়ে এখনও অনেক গবেষণা প্রয়োজন। আরও নানা ধরনের সমীক্ষাও চালাতে হবে। তবেই সিদ্ধান্তে আসা সম্ভব। এখনই যদি ধরে নেওয়া হয় যে মহিলাদের ঋতুচক্রের উপরে সরাসরি প্রভাব ফেলছে করোনার প্রতিষেধক, তা হলে হয়তো অনেক গুরুত্বপূর্ণ কিছু কারণ না দেখা থেকে যাবে।

তাই প্রতিষেধক নেওয়া উচিত কি উচিত নয়, সে ভাবনা এখন দূরে রাখতে পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা। বলছেন, না নেওয়ার মতো কোনও কারণ এখনও দেখা দেয়নি। বরং জেনে রাখা ভাল, যদি কারও ঋতুচক্রের উপরে প্রভাব পড়েও থাকে, তা একেবারেই সাময়িক।

আরও পড়ুন

Advertisement