Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Rare Incident

দু’বছর ধরে পেটে যন্ত্রণায় ভুগছিলেন যুবক, অস্ত্রোপচার করতেই বেরোল রাখি, স্ক্রু, হেডফোন

ধুম জ্বর আর অসহ্য পেটে যন্ত্রণা নিয়ে হাসপাতালে যান যুবক। অস্ত্রোপচার করতেই যুবকের পেট থেকে একে একে বেরোল হেডফোন, স্ক্রু এবং আরও অনেক জিনিস।

Doctors remove earphones, screws, bolts from 40 year Old Man’s Stomach.

জিনিসগুলি কী ভাবে গেল পেটে? ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৬:৪৫
Share: Save:

অসহ্য পেটে যন্ত্রণা নিয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন ৪০ বছর বয়সি কুলদীপ যাদব। পেটের এক্স রে করতেই চোখ ছানাবড়া পঞ্জাবের মোগা হাসপাতালের চিকিৎসকদের। পেটের মধ্যে থরে থরে সাজানো রয়েছে রাখি, হেডফোন, আলপিন, লকেট, স্ক্রু এবং আরও বহু সামগ্রী। এক মুহূর্ত দেরি না করে অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসকেরা। তবে এমন ঘটনায় বিস্মিত গোটা হাসপাতাল।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, কুলদীপ ‘পিকা ডিসঅর্ডার’-এর শিকার। খাওয়ার জিনিস নয়, এমন জিনিস খাওয়ার প্রবণতা তৈরি হয় এই রোগে। কুলদীপও তাই হাতের সামনে যা পেতেন, তা খেয়ে নিতেন। গত দু’বছর ধরে পেটের যন্ত্রণায় ভুগছিলেন কুলদীপ। পেটে ব্যথা হলেই ওষুধ খেতেন। তখনকার মতো সুস্থ হতেন। কিছু দিন আগেই ফের পেটে ব্যথা শুরু হয় তাঁর। সেই সঙ্গে ধুম জ্বর। আর থাকতে না পেরে হাসপাতালে আসেন কুলদীপ। চিকিৎসকেরা প্রথমে পেটে ব্যথার কারণ বুঝতে পারছিলেন না। এক্স রে করতেই জানা যায় গোটা বিষয়টি।

অস্ত্রোপচার করে পেট থেকে জিনিসপত্র বার করা সম্ভব হলেও এখনও বিপন্মুক্ত নন তিনি। কুলদীপকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। খবর দেওয়া হয়েছে রোগীর পরিবারকেও। কুলদীপের এই রোগের বিষয়টি জানতেন বলেই জানিয়েছেন পরিজনেরা। তাঁদের দাবি, কুলদীপ পেটে ব্যথার কথা কখনও বলেননি তাঁদের। তবে বাড়ির লোকজনের আফসোস, এমন অদ্ভুত রোগে ভুগছে জানলে অনেক আগেই চিকিৎসকের কাছে নিয়ে আসা যেত। তা হলে আর এত বাড়াবাড়ি হত না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE