• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

স্যালোঁয় না গিয়ে এই উপায়ে কার্লি করে ফেলুন চুল!

main
সহজ উপায়েই পান কাঙ্ক্ষিত কার্ল।

মাথা ভর্তি ঝাঁকড়া চুল। পরনে হ্যান্ডলুম শাড়ি। আর কপালে একটা টিপ। ব্যস, যে কোনও অনুষ্ঠানের জন্য একেবারে তৈরি আপনি।

কিন্তু কোঁকড়ানো চুল সামলানো বেশ ঝক্কির ব্যাপার। তার উপর খরচও বেশি। বিভিন্ন পার্লারে চুল কার্ল করা হয় বটে, তবে তার খরচও বেশি। তা হলে কি কোঁকড়ানো চুলের সাধ অধরা থাকবে?

তা কেন?  বরং বাড়িতে বসেই চুল কার্ল করে ফেলুন। খুব সহজ কিছু উপায় মেনে চললেই তা সম্ভব।

আরও পড়ুন: অনিদ্রায় ভোগেন? এ সব মানলে ওষুধ ছাড়াই ঘুম আসবে সহজে​

  • প্রথমে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার লাগাতে ভুলবেন না। এ বার বড় দাঁড়ার চিরুণি দিয়ে ধীরে ধীরে চুল আঁচড়ে নিন। জট থাকা চলবে না। তার পর একটা তোয়ালে নিন। হালকা চেপে চেপে বাড়তি জল মুছে ফেলুন। অর্থাৎ চুলে ভিজে ভাব থাকবে, তবে টসটস করে জল পড়বে না।
  • এ বার মাথার মাঝখান দিয়ে সিঁথে কেটে চুল দু'ভাগে ভাগ করে নিন। দু'দিকে দু'টি বিনুনি বাঁধুন। ডগার অংশ মুড়ে রবার ব্যান্ড দিয়ে বেঁধে ফেলুন।
  • তবে খেয়াল রাখবেন ঠিক কতটা কোঁকড়ানো চুল চান আপনি। একটু ঢেউ খেলানো ভাব চাইলে হালকা করে বিনুনি বাঁধতে হবে। আর বেশি কোঁকড়ানো চুল চাইলে শক্ত করে বিনুনি বাঁধতে হবে। সে ক্ষেত্রে তিন-চারটে বিনুনি বাঁধলে ভাল। ঘন চুল হলে তার চেয়েও বেশি হতে পারে।
  • বিনুনি বাঁধা অবস্থায় কয়েক ঘণ্টা থাকুন। শুয়েও পড়তে পারেন। চুল শুকিয়ে গেলে বিনুনি খুলে দিন। চিরুণির বদলে আঙুল চালিয়ে কার্লগুলো ঠিক হয়েছে কি না দেখে নিন। 
  • রোলারের সাহায্যেও চুলে কার্ল করাতে পারেন। যে কোনও কসমেটিকসের দোকানে পেয়ে যাবেন। শ্যাম্পু ও কন্ডিশনিংয়ের পর গোছা গোছা চুল রোলারে বেঁধে মাথায় আটকে রাখুন। চার ঘণ্টা পর খুলে দিন। বেশি কোঁকড়া চুল চাইলে তার চেয়ে বেশি সময় রাখতে পারেন।

আরও পড়ুন: পুজোর পর এ সব উপায়ে চা খেয়ে ঝরিয়ে ফেলুন বাড়তি মেদ​

ব্যস, এই সহজ উপায়েই আপনার চুলে আসবে কাঙ্ক্ষিত কার্ল। বেরনোর আগে কৃত্রিম কার্লে এ ভাবেই পরিপাটি করে নিন আপনার চুলের সাজ। 

ছবি সৌজন্য: পিক্সাবে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন