• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দ্বাদশ দিন: আজকের যোগাভ্যাস

লকডাউনের জেরে গৃহবন্দি। চাপিয়ে দেওয়া ছুটি। বাইরে বেরনোর উপায় নেই। কাজেই ঘরে বসে শরীরচর্চা করে শরীর ও মনকে সুস্থ রাখুন। আজ ১২ তম দিন।

yoga
সিংহ গর্জনাসন। অলঙ্করণ: শৌভিক দেবনাথ।

সিংহগর্জনাসন

গর্জনরত সিংহের মতো ভঙ্গিমা। সিংহ যে ভাবে বসে গর্জন করে, ঠিক সেই ভঙ্গীমায় বসে শরীর ও মন স্থির করে এই আসন অভ্যাস করতে হবে।

কী ভাবে করব?

 • ম্যাটের ওপর হাঁটু গেড়ে বজ্রাসনে বসুন। তবে খেয়াল রাখবেন দুই হাঁটুর মাঝে যেন ৪৫ সেন্টিমিটার ফাঁক থাকে।

 • এ বারে সামনে ঝুঁকে বসুন। দুই হাঁটুর মাঝখানে মেঝেতে হাত রেখে ভর দিন। হাতের খোলা আঙুল রাখুন হাঁটুর নীচে শরীরের দিকে তাক করে।

আরও পড়ুন: লকডাউনে দুধ, পাঁউরুটি ও শাকসব্জি, কী ভাবে সংরক্ষণ করবেন জেনে নিন

 • এ বারে আরও ঝুঁকে সামনের দিকে এগিয়ে আসুন। হাতে ভর দিন। শিরদাঁড়া সোজা রেখে মাথা পেছন দিকে হেলান। এর ফলে গলায় চাপ অনুভব করবেন।

 • এই অবস্থায় চোখ খুলে দুই ভ্রূর মাঝখানে দৃষ্টি নিবদ্ধ করার চেষ্টা করুন। শরীর শিথিল করুন, মুখ বন্ধ থাকবে।

 • ধীরে ধীরে নাক দিয়ে শ্বাস টানুন। এর পর যতটা সম্ভব জিহ্বা বাইরে বার করুন।

 • এ বারে ‘অ্যা’ শব্দ করতে করতে মুখ দিয়ে শ্বাস ছাড়ুন। খেয়াল রাখবেন যেন গলা দিয়ে আওয়াজ বেরোয়। মুখ বড় করে খুলে রাখতে হবে এবং আওয়াজ যেন ঠিক ভাবে বেরোয় সে দিকে খেয়াল রাখবেন।

• শ্বাস ছাড়া হয়ে গেলে জিহ্বা মুখের ভেতর ঢুকিয়ে মুখ বন্ধ করুন। নাক দিয়ে শ্বাস নিন। এই সময় চোখ বুজে থাকতে হবে। এই ভাবে আসনের এক রাউন্ড সম্পূর্ণ হল। এই ভাবে পাঁচ রাউন্ড করতে হবে।

• প্রতি বার আসন অভ্যাস করার পর চোখ, জিহ্বা ও মুখ শিথিল করে নিতে হবে।

আরও পড়ুন: লকডাউনে সঙ্গী স্রেফ টিভি আর মোবাইল, বাচ্চার ক্ষতি হবে না তো?

কেন করব এই আসন?

সিংহগর্জাসন নাক, কান, গলা ও চোখের সমস্যা দূরে সরিয়ে রাখতে সাহায্য করে। ‘অ্যা অ্যা’ শব্দ করে শ্বাস ছাড়ার সময় মধ্যচ্ছদা ও বুকে চাপ পড়ে, টেনশন ও ভয় দূর হয়। যাঁরা গান বা আবৃত্তি করেন, তাঁদের জন্য এই আসনটি অত্যন্ত উপযোগী, গলার স্বর ভাল হয়। নিয়মিত এই আসন অভ্যাস করলে অন্তর্মুখি ও নার্ভাস মানুষদের ব্যক্তিত্ব ও আত্মবিশ্বাস বাড়ে। সিংহগর্জাসন রাগ ও বদমেজাজ বশে রেখে মন শান্ত রাখতে সাহায্য করে। বাড়ন্ত বাচ্চা ও বয়ঃসন্ধির ছেলেমেয়েদের জন্যে এটি অত্যন্ত উপযোগী আসন।

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণছবিভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকাকোন দিনকোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন