×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৪ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

বর্ষবরণের আড্ডা জমিয়ে তুলুক ঘরোয়া স্বাদের কবাব

রূম্পা দাস ভট্টাচার্য
কলকাতা ১৪ এপ্রিল ২০২১ ১৮:৫২
ঘরোয়া অথচ সাবেক ছোঁয়ার স্বাদ থাকুক পাতে।

ঘরোয়া অথচ সাবেক ছোঁয়ার স্বাদ থাকুক পাতে।
ছবি- পৌলমী মল্লিক কুন্ডু

নতুন বছর আসার আনন্দ। হালখাতা, নতুন শালুর গন্ধ, গণেশ পুজো, আমপাতা, মিষ্টিমুখ তো রইলই। কিন্তু তার পাশাপাশি পেট পুরে, কব্জি ডুবিয়ে, মন ভরে না খেলে কি আর নতুন বছর উদ্‌যাপন হয়? তবে গরম যা বাড়ছে, তাতে এমন রান্না করাই ভাল, যা শুধু পেটে নয়, স্বাস্থ্যেও সয়। ঘরোয়া অথচ সাবেক ছোঁয়ার স্বাদ থাকুক পাতে।

বছর শুরুর আড্ডার সময়ে টুকটাক তো চাই। গল্প করতে করতে খাবার না খেলে সেই আড্ডা জমে না। অথচ সেই খাবার এমন হওয়া চাই যাতে, পেট পুরোপুরি ভরবে না। মন চাইবে আরও। এ বার বর্ষবরণ হোক কাঁচা আম দিয়ে মাছের কবাবে। বাড়িতেই চটজল্দি বানিয়ে নেওয়া যাক মুখরোচক এই খাবার।

উপকরণ:

Advertisement

ভেটকি বা যে কোনও নরম মাছের ফিলে ১২ টুকরো, কাঁচা আম ১টি, ধনে পাতা আধ কাপ, পেঁয়াজ বাটা আধ কাপ, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়ো এক চিমটি, কাঁচা লঙ্কা ৪টি, ছোলার ছাতু ২ টেবিল চামচ, নুন স্বাদমতো, ঘি অল্প।

প্রণালী:

মাছের টুকরো ধুয়ে তাতে কাঁচা আম বাটা, কাঁচা লঙ্কা বাটা, নুন, হলুদ, লঙ্কা গুঁড়ো, পেঁয়াজ বাটা মিশিয়ে রাখুন আধ ঘণ্টা। এবার মাছের ম্যারিনেশনে ছাতু মিশিয়ে নিন। এতে মশলা মাছের গায়ে লেগে থাকবে। কড়াইয়ে ঘি গরম করুন। মাছের টুকরো প্রথমে ঢাকা দিয়ে অল্প আঁচে সেঁকে নিন। তার পরে ভিতরটা সিদ্ধ হয়ে গেলে আঁচ বাড়িয়ে দু’-পিঠ লাল করে ভেজে নিন। কাসুন্দি সহযোগে পরিবেশন করুন।

টক-ঝাল এই কবাবের সঙ্গে গল্প জমবে বেশ!

Advertisement