Advertisement
০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Relationship

বাবা নন, স্বামী! স্ত্রীর শিশুসুলভ মুখ আর স্বামীর টাকে বয়স বোঝা দায়, নাজেহাল দম্পতি

অনেকেই একসঙ্গে দেখে বাবা ও মেয়ে ভাবেন তাঁদের। কারণ, স্বামীর টাক ও স্ত্রীর শিশুসুলভ মুখশ্রী। শিকার হতে হয় বিড়ম্বনার, এমনই অনুযোগ করলেন আমেরিকার এক দম্পতির।

দম্পতি জানিয়েছেন, এক দশকের বেশি সময় ধরে তাঁরা একসঙ্গে রয়েছেন।

দম্পতি জানিয়েছেন, এক দশকের বেশি সময় ধরে তাঁরা একসঙ্গে রয়েছেন। ছবি: সংগৃহীত

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক শেষ আপডেট: ১০ নভেম্বর ২০২২ ১৬:৪৯
Share: Save:

সম্পর্কে তাঁরা স্বামী-স্ত্রী। বয়সের ফারাক ৩ বছরের। কিন্তু অনেকেই একসঙ্গে দেখে বাবা ও মেয়ে ভাবেন তাঁদের। কারণ, স্বামীর টাক ও স্ত্রীর শিশুসুলভ মুখশ্রী। এমনই অনুযোগ করলেন আমেরিকার অ্যারিজোনার বাসিন্দা ক্যারোলিন ও ড্রিউ ফুলৎজ নামের দম্পতি।

Advertisement

দম্পতি জানিয়েছেন, এক দশকের বেশি সময় ধরে তাঁরা একসঙ্গে রয়েছেন। এই দীর্ঘ সময়ে নিজেদের মুখাবয়বের জন্য হরেক রকমের বিড়ম্বনার শিকার হয়েছেন তাঁরা। ক্যারোলিন জানিয়েছেন, অনেক সময় এমনও হয়েছে যে, তাঁরা একে অপরকে আদর করছেন, আর তাতে বাঁকা চোখে তাকাচ্ছেন আশপাশের মানুষ। নানা ধরনের ব্যঙ্গ-বিদ্রুপের শিকারও হতে হয়েছে বলে দাবি তাঁর। দু’জনের যখন প্রথম আলাপ, তখন থেকেই এই ধরনের সমস্যার সূত্রপাত। ২২ বছর বয়সেই ড্রিউকে বেশ বয়স্ক মনে হত। অন্য দিকে সদ্যযৌবনা ক্যারোলিনকে দেখে মনে হত বালিকা। তখনও ধেয়ে আসত কটাক্ষ, আক্ষেপ দম্পতির। এখন ড্রিউ-এর বয়স ৩৩ আর ক্যারোলিনের বয়স ৩০। বিড়ম্বনা কিছুটা কমলেও পুরোপুরি নির্মূল হয়নি সমস্যা, জানিয়েছেন তাঁরা।

সম্প্রতি সমাজমাধ্যমে নিজেদের একটি ভিডিয়ো প্রকাশ করেন ক্যারোলিন। শিরোনামে লেখেন, “এক দিকে আমার মুখ কিছুটা শিশুদের মতো, অন্য দিকে আমার স্বামীর অল্প বয়সেই সব চুল পড়ে গিয়েছে। বহু মানুষ সে কারণে আমাদের বাবা ও মেয়ে মনে করেন।” প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই সমাজমাধ্যমে ঝড় তুলেছে ভিডিয়োটি। ১ কোটি আশি লক্ষের বেশি মানুষ দেখেছেন সেই ভিডিয়ো।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.