Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Weird but True

রান্নায় লঙ্কা দিতে গিয়ে বিপত্তি, নাকে ঝাঁজ যাওয়ার পর থেকে কোমায় তরুণী

লঙ্কা খেলে ঝাল লাগতে পারে। লঙ্কার ঘ্রাণে বন্ধ নাক খুলেও যেতে পারে। কিন্তু এই গন্ধ শুঁকে কেউ কোমায় যেতে পারেন কি? এমন ঘটনাই ঘটেছে ব্রাজিলে।

Image of Pepper.

— প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
রিও ডি জেনিরো শেষ আপডেট: ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৬:৪৩
Share: Save:

রান্না করতে গিয়ে লঙ্কা চিরে নিয়ে এক বার নাকের কাছে ঘুরিয়ে নেন অনেকেই। কারণ, ঝাঁঝালো লঙ্কার গন্ধে অনেকেরই মন চনমনে হয়ে যায়। সর্দি-জ্বরে বন্ধ নাক খুলে যায় লঙ্কার গন্ধে। সেই ঝাঁঝ একেবারে মস্তিষ্কে গিয়ে আঘাত করে। সেখান থেকে যে এমন বিপত্তি ঘটতে পারে, তা হয়তো আঁচ করতে পারেননি ব্রাজিলের তরুণী। বিশেষ এক প্রকার লঙ্কার গন্ধ শুঁকে কোমায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়েন তিনি।

সে দেশের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রাজিলের অ্যানাপলিসের বাসিন্দা, বছর ২৫-এর থাইস মেডেরোজ় অলিভেরা বিশেষ একটি অনুষ্ঠান উপলক্ষে নিজের বাড়িতেই মা-বাবার পছন্দের একটি পদ রান্না করতে গিয়েছিলেন। রান্নার বিভিন্ন উপকরণ, অন্যান্য মশলা দেওয়ার শেষে কয়েকটি লঙ্কাও ছড়িয়ে দিতে গিয়েছিলেন। লঙ্কা চিরে রান্নায় দেওয়ার আগে এক বার তার ঘ্রাণ নিয়েছিলেন শুধু। ব্যস্, তাতেই সমস্যার সূত্রপাত। চিকিৎসকেরা বলছেন, তীব্র ঝাল এবং ঝাঁঝালো গন্ধের বিশেষ প্রকার ‘পিকল্‌ড গোট পেপার’ লঙ্কার ঘ্রাণ নেওয়ার পরেই ওই তরুণীর গলায় অস্বস্তি হতে শুরু করে।

শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তড়িঘড়ি তাঁকে নিয়ে যেতে হয় স্থানীয় হাসপাতালে। সেখানেই তাঁর বিভিন্ন রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়। করা হয় মস্তিষ্কের স্ক্যানও। দেখা যায়, তত ক্ষণে ঝাঁঝালো লঙ্কার ঝাঁঝ-গন্ধে ওই তরুণীর মস্তিষ্কে প্রদাহ হতে শুরু করেছে। স্নায়ু ফুলে গিয়ে বিকল হওয়ার পরিস্থিতি হয়েছে। চিকিৎসা পরিভাষায় যাকে বলা হয় ইডিমা। চিকিৎসকেরা ওই তরুণীর চিকিৎসা শুরু করলেও কোমায় আচ্ছন্ন অবস্থায় বেশ কিছু দিন পর্যন্ত থাকতে হয় তাঁকে। অ্যালার্জিজনিত সমস্যা থেকেই থাইসকে এমন সমস্যার মুখে পড়তে হয়েছে বলে চিকিৎসকদের অনুমান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE