Advertisement
২৬ মে ২০২৪
washing machine

ওয়াশিং মেশিন তো ব্যবহার করছেন, এ সব নিয়ম মানছেন?

মেনে চলুন কিছু নিয়ম ও কৌশল। তাতেই আপনার ওয়াশিং মেশিন ভাল থাকবে। জানেন কী কী সচেতনতা অবলম্বন করলে দিনের পর দিন ভাল থাকবে এই যন্ত্র?

ওয়াশিং মেশিন ভাল রাখতে গেলে মেনে চলুন কিছু মূল বিষয়।

ওয়াশিং মেশিন ভাল রাখতে গেলে মেনে চলুন কিছু মূল বিষয়।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩১ জানুয়ারি ২০১৯ ১৬:২০
Share: Save:

প্রযুক্তি যত এগিয়েছে, ততই তার হাত ধরে উন্নত হয়েছে আমাদের জীবনযাপনের কৌশল। বিভিন্ন কাজেই যন্ত্রনির্ভর হয়ে পড়েছি আমরা অনেকেই। জামাকাপড় কাচাকুচিতেও হাতের জায়গা নিয়েছে ওয়াশিং মেশিন। ফলে কাজের সময় যেমন কমেছে, তেমনই কমেছে শ্রম।

কেবল তা-ই নয়, লন্ড্রিতে প্রায় সব ধরনের জামাকাপড় কাচতে পাঠানোর রেওয়াজও কমে গিয়েছে এই যন্ত্রের হাত ধরে। তাই পকেটের আরামও ভুলে গেলে চলবে না। তবে অসতর্কতা ও নিয়ম না জেনে যন্ত্র ব্যবহারের ফলে যান্ত্রিক ত্রুটির শিকার হতে হয়।

মেনে চলুন কিছু নিয়ম ও কৌশল। তাতেই আপনার ওয়াশিং মেশিন ভাল থাকবে। জানেন কী কী সচেতনতা অবলম্বন করলে দিনের পর দিন ভাল থাকবে এই যন্ত্র?

আরও পড়ুন: ব্রেকফাস্টে এ সব খেয়ে অজান্তেই বিপদ ডেকে আনছেন নিজের

ওয়াশিং মেশিন বসানোর সময় খেয়াল রাখুন। সমান মেঝেতে মেঝের সঙ্গে সমান্তরাল করে বসান ওয়াশিং মেশিন। উঁচু-নিচু ভূমিতে বা এবড়োখেবড়ো ভাবে ওয়াশিং মেশিন বসালে তার অভ্যন্তরীণ ক্ষতি হয়। অনেকেই ওয়াশিং মেশিন থেকে বেরনো কোনও অস্বাভাবিক আওয়াজকে প্রথম দিকে গুরুত্ব দেন না। জামাকাপড় ধুতে অসুবিধা হচ্ছে না বলে দিনের পর দিন সেই আওয়াজ-সহ ব্যবহার করে যান ওয়াশিং মেশিন। এমনটা করলে কিন্তু পরে পস্তাবেন। যন্ত্রের কোনও অংশ আলগা হয়ে খুলে এলে বা অস্বাভাবিক কোনও আওয়াজ পেলে দ্রুত যন্ত্রের সংস্থা বা বিশেষজ্ঞ কারিগরের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। জামাকাপড় পরিষ্কারের পর ভাল করে ধুয়ে ফেলুন ওয়াশিং মেশিন। অনেকেই জামা-কাপড় কাচার পর আর যন্ত্রটি পরিষ্কার করেন না। যন্ত্রের গায়ে সাবানগুঁড়ো, ফেনা জমে তা মেশিনের ক্ষতি করে। তাই কাজ মিটে গেলে যন্ত্রটিও ভাল করে পরিষ্কার করে নিন।

আরও পড়ুন:অ্যাজমা বা হাঁপানির ভয়? অসুখ ঠেকাতে পরিবর্তন আনুন এ সবে

একসঙ্গে অনেক জামাকাপড় ওয়াশিং মেশিনে দিলে তা যন্ত্রের জন্য ক্ষতিকর।

ওয়াশিং মেশিনে অনেক রকমের সুইচ থাকে| ব্যবহার না জেনে হঠাৎ কোনও সুইচ অন বা অফ করবেন না। এক একটা সুইচ এক এক রকম কাজ করে। তাই সুইচ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সচেতন হোন | বারবার সুইচ অন বা অফ করা, অকারণে জোরে চাপ দিয়ে সুইচ ব্যবহার বন্ধ করুন। জামাকাপড়ের পরিমাণ কমান। একসঙ্গে অনেক জামাকাপড় ওয়াশিং মেশিনে দিলে মেশিনের গতি ও বল ভাল করে কাজ করে না। ফলে মেশিনের তো ক্ষতি হয়ই, সঙ্গে জামাকাপড় ভাল করে পরিষ্কারও হয় না। তাই একসঙ্গে অনেক জামাকাপড় না রেখে এক এক বারে সীমিত পরিমাণে জামাকাপড় কাচুন ওয়াশিং মেশিনে। এতে মেশিন দীর্ঘ দিন ভাল থাকবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Washing Machine LIfe Hacks Daily Hacks Tech
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE