Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
Fridge

কোন তাপমাত্রায় ভাল থাকে ফ্রিজে রাখা খাবার? জানাচ্ছে আনন্দবাজার ডিজিটাল

নির্দিষ্ট তাপমাত্রার উপরে উঠলে ফ্রিজের খাবার যেমন নষ্ট হয়ে যেতে পারে, কমে গেলেও তাই।

ফ্রিজে তাপমাত্রা কত রাখা উচিত?

ফ্রিজে তাপমাত্রা কত রাখা উচিত? ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ মার্চ ২০২১ ১৩:৫৫
Share: Save:

গরম বাড়ছে। ফ্রিজের ব্যবহারও বাড়ছে। কিন্তু তা বলেই কি ফ্রিজের তাপমাত্রা যত খুশি কমিয়ে দেওয়া যায়? মোটেই না। নির্দিষ্ট তাপমাত্রার উপরে উঠলে ফ্রিজের খাবার যেমন নষ্ট হয়ে যেতে পারে, কমে গেলেও তাই। ঠিক কোন তাপমাত্রায় ফ্রিজকে রাখবেন, তা নিয়ে চিন্তায় থাকেন অনেকেই। আনন্দবাজার ডিজিটালের তরফে তাঁদের জন্য রইল সহজ সমাধান।

৪.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস (৪০ ডিগ্রি ফারেনহাইট): ফ্রিজের তাপমাত্রা এর চেয়ে বেশি বাড়ানো উচিত নয়। সে ক্ষেত্রে দ্রুত বংশবৃদ্ধি করে ব্যাকটিরিয়া। ফলে খাবার দ্রুত নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

১.৭ ডিগ্রি থেকে ৩.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস (৩৫ ডিগ্রি থেকে ৩৮ ডিগ্রি ফারেনহাইট): প্রচলিত ধারণা, এই তাপমাত্রার মধ্যেই খাবার সব চেয়ে ভাল থাকে। এই তাপমাত্রায় ব্যাকটিরিয়া বিশেষ বংশবৃদ্ধি করতে পারে না। খাবার অতিরিক্ত মাত্রায় ঠান্ডা হয়ে জমেও যায় না।

০ ডিগ্রি সেলিয়াস (৩২ ডিগ্রি ফারেনহাইট): এই তাপমাত্রা বা তার নীচে কখনও খাবার রাখা উচিত নয়। কারণ এতে খাবার জমে যেতে শুরু করে। খাবারের নিজস্ব আর্দ্রতা নষ্ট হয়ে যায়। বোতলে জল ভর্তি থাকলে, তা ফেটে যাওয়ার আশঙ্কাও থাকে।

কী ভাবে মাপবেন ফ্রিজের তাপমাত্রা?

বাজারে বা অনলাইনে সহজেই কিনে নেওয়া যায় ফ্রিজের তাপমাত্রা মাপার থার্মোমিটার। বেশ কয়েক ঘণ্টা ফ্রিজের মধ্যে রেখে দিলে, সহজেই মাপা যায় তাপমাত্রা।

এ সবের পাশাপাশি ফ্রিজ ব্যবহারের সময় কয়েকটি নিয়ম মাথায় রাখা ভাল।

খাবার ঠান্ডা করে: গরম খাবার ফ্রিজে রাখবেন না। ঘরের তাপমাত্রায় এনে ঠান্ডা করে, তবেই ফ্রিজে ঢোকানো ভাল। না হলে ব্যাকটিরিয়া খাবারে দ্রুত বংশবৃদ্ধি করে। খাবারটি নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

দরজা পরীক্ষা: নিয়মিত ফ্রিজের দরজা পরীক্ষা করা উচিত। অনেক সময় পাল্লার রাবার নষ্ট হয়ে ফাঁক হয়ে যায়। তাতে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়ে।

এক বারে সব: বারবার ফ্রিজ খুলবেন না। এতে যন্ত্রে চাপ পড়ে। এক বার খুলে যতটা পারবেন জিনিস বের করে নিন। বিদ্যুৎ অপচয়ও কমবে।

ভরা ফ্রিজ: ফ্রিজে যত বেশি জিনিস রাখা যায়, ফ্রিজ তত ভাল থাকে। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে, তাতে যেন ঠান্ডা হাওয়া ঢোকার পথগুলো বন্ধ না হয়ে যায়।

উপরের নিয়মগুলি মেনে চললে, ফ্রিজের স্বাস্থ্য তো বটেই, ভাল থাকবে খাবারও। এর পরে কোনও সমস্যা হলে দ্রুত ফ্রিজপ্রস্তুতকারী সংস্থার প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলে নেওয়া উচিত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE