সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি ও এক ছাত্রকে কাশ্মীরে যাওয়ার অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট। তাঁদের নিরাপত্তার জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ারও নির্দেশ দিল শীর্ষ আদালত।

তাঁর এক দলীয় সহকর্মী মহম্মদ ইউসুফ তারিগামির সঙ্গে দেখা করার জন্য শ্রীনগরে যেতে চেয়েছিলেন ইয়েচুরি। সংবিধানের ৩৭০ ধারা রদের পর এক বার তাঁকে শ্রীনগর থেকে ফিরিয়ে দেয় স্থানীয় প্রশাসন। তার পরেই অনুমতি চেয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক। অন্য দিকে, কাশ্মীরেরই এক আইনের ছাত্র মহম্মদ আলিম সইদ বন্ধু ও মা, বাবার সঙ্গে দেখা করার জন্য যেতে চেয়েছিলেন কাশ্মীরে। যাতে স্থানীয় প্রশাসন বাধা দিতে না পারে, সে জন্য তিনিও সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন।

প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ বুধবার তাঁদের আবেদনের শুনানিতে বলেন, ‘‘আপনাদের দু’জনকেই কাশ্মীরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হল। আইনের যে ছাত্রটি আবেদন করেছিলেন তিনি জম্মু ও কাশ্মীরে যেতে পারবেন। মা, বাবার সঙ্গে দেখা করতে পারবেন অনন্তনাগে যেতেও। ফিরে এসে হলফনামাও জমা দিতে পারবেন। ওই ছাত্রের নিরাপত্তার সব রকম ব্যবস্থা করতে হবে স্থানীয় প্রশাসনকে।’’

আরও পড়ুন- নিয়ন্ত্রণরেখায় ১০০ কম্যান্ডো মোতায়েন করল পাকিস্তান, কড়া নজর রাখছে ভারত​

আরও পড়ুন- সংবাদমাধ্যমকে তোপ​

ইয়েচুরিকে অনুমতি দিতে গিয়ে বিচারপতি গগৈ বলেন, ‘‘আমরা আপনাকে দেখা করার অনুমতি দেব। আপনি কেবল আপনার বন্ধুর সঙ্গেই দেখা করতে যাচ্ছেন তো? এই দেশের এক নাগরিক তাঁর বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে চায়। এতে অসুবিধা কোথায়?” 

ইয়েচুরির সফরে আপত্তি জানাতে গিয়ে কেন্দ্রের তরফে আদালতে জানানো হয়েছিল, সিপিএম নেতার সফরের ফলে কাশ্মীরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বেহাল হয়ে পড়তে পারে।