জগনমোহন রেড্ডির সরকারের বিরুদ্ধে এক রাশ অভিযোগ তুলে ‘আত্মাকুর র‌্যালি’র ডাক দিয়েছিলেন তেলুগু দেশম পার্টি (টিডিপি) প্রধান চন্দ্রবাবু নায়ডু। বুধবার সেই কর্মসূচি পালনের আগেই অমরাবতীতে গৃহবন্দি হলেন তিনি। তাঁর ছেলে নারা লোকেশকেও গৃহবন্দি করা হয়েছে। বেশ কয়েকটি জায়গায় ১৪৪ ধারাও জারি করা হয়েছে। ঘটনার প্রতিবাদে রাজ্য জুড়ে ১২ ঘণ্টা অনশনের ডাক দিয়েছেন টিডিপি প্রধান।

টিডিপির অভিযোগ, গত মে মাসে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের পর থেকে তাদের আট জন কর্মীকে খুন করা হয়েছে। পাঁচশো কর্মী ও সমর্থকের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে বলেও অভিযোগ। এই ঘটনায় ওয়াই এস আর কংগ্রেসকেই কাঠগড়ায় তুলেছে টিডিপি। তার প্রতিবাদে এ দিন মিছিলের ডাক দিয়েছিলেন চন্দ্রবাবু নায়ডু। অন্ধ্র পুলিশের অবশ্য দাবি, মিছিলের অনুমতি না থাকায় চন্দ্রবাবু ও তাঁর ছেলেকে গৃহবন্দি করা হয়েছে। ডিজি গৌতম সাওয়াং বলেন, ‘‘১৪৪ ধারা জারি থাকায় কোনও সভা, র‌্যালি, মিছিল বা প্রতিবাদ করা যাবে না’’ নারাসারাওপেটা, সাতেনাপাল্লে, পলনাড়ু ও গুরাজালা এলাকায় ইতিমধ্যেই ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

নিজে গৃহবন্দি হলেও কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার জন্য দলীয় নেতা কর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন টিডিপি প্রধান। চন্দ্রবাবুর ছেলে তথা দলের সাধারণ সম্পাদক নারা লোকেশ টুইটে লিখেছেন, ‘যত ক্ষণ না পর্যন্ত হিংসার আক্রান্তরা সুবিচার পাবেন, তত ক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।’ চন্দ্রবাবুর কর্মসূচিকে ‘রাজনৈতিক চমক’ হিসাবেই দেখছে ওয়াই এস আর কংগ্রেস। জগনের দলের মুখপাত্র অম্বাতি রামবাবু মন্তব্য করেন, লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচনে দুরমুশ হওয়ার পর রাজনৈতিক চমক তৈরি করতে চাইছেন চন্দ্রবাবু।

আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবেই, কলকাতায় এসে বললেন স্মৃতি ইরানি​

আরও পড়ুন: ডাকছে ইসরো, এখনও সাড়া নেই বিক্রমের​