• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সাত থেকে সতেরো, খুন-ধর্ষণ, দেশ জুড়ে চলছেই

rape
প্রতীকী ছবি।

Advertisement

হায়দরাবাদের চিকিৎসককে ধর্ষণ ও পুড়িয়ে মারার ঘটনা নিয়ে দেশ যখন উত্তাল, তখন গত কয়েক দিনে একের পর এক বালিকা-কিশোরী-যুবতীকে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা সামনে এল দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। এদের কারও বয়স চার, ছয়, কেউ আবার সতেরো বছরের কিশোরী। রাজস্থানে ধর্ষণ করে, গলায় স্কুলের বেল্ট জড়িয়ে খুন করা হয়েছে ছয় বছরের বালিকাকে। সে রাজ্যেই নিজের বাড়িতে হাত পায়ে শিকল বাঁধা অবস্থায় ধর্ষিতা বছর সতেরোর এক কিশোরী। ধর্ষক তার নিজের বাবা। মহারাষ্ট্রে রেহাই পায়নি চার বছরের শিশুও।

রাজস্থানের টঙ্কে ছয় বছর বয়সি এক বালিকা শনিবার স্কুলে গিয়েছিল। তার পর আর বাড়ি ফেরেননি সে। পুলিশ ও বাড়ির লোকেরা খোঁজ শুরু করলে ররিবার সকালে গ্রামে ফাঁকা জায়গায় ঘাসের ঝোপের তার দেহ মেলে। পুলিশ জানিয়েছে, ওই বালিকাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। ওই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৪০ বছর বয়সি এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

১৭ বছর বয়সি এক কিশোরীকে হাত-পা বেঁধে বন্দি করে ধর্ষণের ঘটনার কথা সামনে এসেছে রাজস্থানের জালোর জেলা থেকে। মেয়েটির অভিযোগ, তাকে ধর্ষণ করেছে তার বাবা। শুক্রবার রাতে পায়ে শিকল বাঁধা অবস্থাতেই বাড়ি থেকে পালাতে সফল হয় কিশোরী।  কাকার খেতে পৌঁছয় সে। মহারাষ্ট্রের নাগপুরে চার বছরের শিশুকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কের এক এজেন্ট। দেখে ফেলে তার মা। ক্ষুব্ধ জনতা ৩৫ বছর বয়সি ওই ব্যক্তিকে নগ্ন করে রাস্তায় ঘোরায়। পরে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: তেলঙ্গানার পর মধ্যপ্রদেশ, চার বছরের শিশুকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে খুন

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন