হোলির দিনে মুসলিম ছেলেকে নিরাপদে মসজিদে পৌঁছে দিচ্ছে হিন্দু মেয়ে। সম্প্রীতির চিত্র তুলে ধরা এই বিজ্ঞাপন সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছিল নেটদুনিয়ায়। বন্ধুত্ব ও ভালবাসার পথে ধর্ম যে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে না। সেই কথাকেই ফের প্রতিষ্ঠা করল ভাইরাল হওয়া একটি ফেসবুক পোস্ট।

‘হিউম্যানস অফ বম্বে’ নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে একটি পোস্ট করা হয়েছে। সেই পোস্টে দেখা মসজিদের বাইরে বসে আছেন চারজন যুবক। তাঁদের তিনজনের মাথায় আছে ফেজ টুপি। শুধু তিনজনের মধ্যে বসে থাকা এক যুবকের মাথায় নেই টুপি। কারণ তিনি হিন্দু। তবে তাঁরা চারজনেই খুব ভাল বন্ধু। বন্ধুত্বের পাশাপাশি নিজ নিজ ধর্ম নিয়েও আলোচনা হয় তাঁদের মধ্যে।

এই চারজনের বন্ধুত্ব তুলে ধরা ওই ফেসবুক পোস্টে লেখা হয়েছে কীভাবে তাঁরা রোজদিন জেনে নিচ্ছে একে অপরের ধর্মকে। সেখানে লেখা রয়েছে, ‘এই চারজন একে অপরের খুব ভাল বন্ধু। প্রত্যেকদিন সন্ধ্যায় তাঁরা এখানে আসে নমাজ পড়তে। মধ্যের জন একজন হিন্দু। তবুও তিনি আসেন। কারণ কাজের পর এ ভাবেই তাঁরা নিজেদের মধ্যে সময় কাটান।’

হিন্দু যুবকের সঙ্গে মুসলিম যুবকদের ধর্ম নিয়ে আলোচনার প্রসঙ্গে ওই পোস্টে আরও লেখা হয়েছে, ‘আমরা তাঁর জন্য প্রার্থনা করি, সেও আমাদের জন্য প্রার্থনা করে। এমনকি কোরানের বিভিন্ন অংশও তাঁর জানা। আমরাও তাঁর কাছে শিখেছি গায়ত্রী মন্ত্র।’ 

এরপরই পোস্টে তোলা হয়েছে একটি মোক্ষম প্রশ্ন। সর্বধর্ম সমন্বয় নিয়ে নেটিজেনদের উদ্দেশে প্রশ্ন, ‘যদি গোটা বিশ্ব এটা বুঝত তাহলে কী পৃথিবীর বুকেই স্বর্গ গড়ে উঠত না?’

আরও পড়ুন: ১৭ বছরে একদিনের জন্যও স্কুল কামাই করেননি এই যুবক