• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আগামী বছরই ডুবোজাহাজ ধ্বংসকারী মার্কিন হেলিকপ্টার পাচ্ছে ভারত, আলোচনা জারি অস্ত্র নিয়ে

Indian Navy
শক্তি বাড়ছে ভারতীয় নৌবাহিনীর। —ফাইল চিত্র।

খুব শীঘ্রই ডুবোজাহাজ ধ্বংসকারী এমএইচ-৬০ আর হেলিকপ্টার হাতে পাবে ভারতীয় নৌবাহিনীমার্কিন সংস্থা লকহিড মার্টিনের সঙ্গে ইতিমধ্যেই ৯০ কোটি ৫০ লক্ষ ডলারের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়ে গিয়েছে ভারতের। তার আওতায় মোট ২৪টি হেলিকপ্টার কেনা হচ্ছে। আগামী বছরের শুরুতেই এর মধ্যে বেশ কয়েকটি হাতে পাবে ভারতীয় নৌবাহিনী।

সমুদ্রের যত গভীরেই শত্রুপক্ষের ডুবোজাহাজ ঘাপটি মেরে থাকুক না, কেন, সেগুলিকে খুঁজে বার করে গুঁড়িয়ে দিতে সক্ষম এই এমএইচ-৬০ আর হেলিকপ্টারগুলি। এই মুহূর্তে ১৯৭১ সালে ব্রিটেন থেকে কেনা ‘সি কিং’ হেলিকপ্টারগুলিই ব্যবহার করছে ভারতীয় নৌবাহিনী। কিন্তু তার মধ্যে বেশিরভাগই অচল হয়ে গিয়েছে। তাই নয়া হেলিকপ্টারগুলি হাতে পেলে ভারত মহাসাগরে চিন ও পাকিস্তানের মোকাবিলা করা সহজ হবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

২০১৯ সালেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভারতের এই হেলিকপ্টার চুক্তির কথা ঘোষণা হয়। সেইসময় মার্কিন বিদেশমন্ত্রক জানায়, ২৬০ কোটি ডলারের বিনিময়ে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হচ্ছে। সেইসময় হেলিকপ্টারের সঙ্গে সেন্সর, কমিউনিকেশন প্রযুক্তি, হেলফায়ার ক্ষেপণাস্ত্র-সহ একাধিক অস্ত্রশস্ত্র প্রযুক্তি, এমকে-৫৪ টর্পেডো এবং রকেট প্রযুক্তিও বিক্রি করা হবে বলে জানানো হয়।

আরও পড়ুন: মুম্বই, পুণে-সহ হটস্পটগুলিতে লকডাউনের মেয়াদ বাড়াতে চলেছে মহারাষ্ট্র​

কিন্তু শেষ মেশ দু’দেশের মধ্যে যে চুক্তি হয়েছে, তার মূল্য ২৬০ কোটি ডলারের অর্ধেকেরও কম। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, হেলিকপ্টার কেনার চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়ে গেলেও, তাতে কোন ধরনের সেন্সর বসবে, কী ধরনের অস্ত্রপ্রযুক্তি থাকবে, তা নিয়ে এখনও দর কষাকষি চলছে।

আরও পড়ুন: তিন গুণ ভাড়া বাড়িয়ে পথে নামবে বেসরকারি বাস​

এই চুক্তিতে মার্কিন নৌবাহিনীরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তাদের কাছ থেকেই ভারতে প্রথম টিনটি এমএইচ-৬০ আর হেলিকপ্টার এসে পৌঁছনোর কথা, হেলিকপ্টারগুলি নৌবাহিনীর হাতে পৌঁছনোর আগেই সেগুলি চালানোর প্রশিক্ষণ পেয়ে যান ভারতীয় নৌবাহিনীর পাইলটরা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন