• সংবাদসংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘ভারত জানে কী ভাবে জবাব দিতে হয়’, চিনকে কড়া বার্তা ‘মন কি বাতে’

Narndra Modi in Mann Ki Baat
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ছবি: পিটিআই।

ভারত যেমন বন্ধুত্ব জানে, তেমনই চোখে চোখ রেখে কথা বলতেও জানে। চিনের  মোকাবিলায় ভারত যে প্রয়োজনে কড়া মনোভাব নিতে দ্বিধা করবে না, মাসের শেষ রবিবারের ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে দেশবাসীকে সেই বার্তাই দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

নিয়ম মেনেই মাসের শেষ রবিবার বেলা ১১টায় ‘আবির্ভাব’ হল তাঁর। তবে মোদীর এদিনের ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে দেশবাসীর উদ্দেশে বার্তা দেওয়ার পাশাপাশি নাম না-করে নিশানা করলেন চিনকে। করোনা, আমপান (প্রকৃত উচ্চারণে উম পুন), পঙ্গপাল হানার পাশাপাশি এদিন প্রধানমন্ত্রীর মুখে এসেছে লাদাখে হানাদারির প্রসঙ্গও। তিনি বলেন, ‘‘লাদাখে ভারতীয় ভূখণ্ডের দিকে যারা নজর দিয়েছিল, তাদের সমুচিত জবাব দেওয়া হয়েছে।’’ পাশাপাশি এসেছে, নাম না-করে চিনা পণ্য বয়কটের প্রসঙ্গও, সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রাপ্ত অসমের এক নাগরিকের মন্তব্যের প্রসঙ্গ এনে নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘‘পূর্ব লাদাখের ঘটনার পরে উনি শুধুমাত্র দেশীয় পণ্য কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’’

আরও পড়ুন: চিনের নয়া শিবির, সেনা বাড়াচ্ছে ভারত, লাদাখে জমি ফিরবে কি?

গালওয়ান উপত্যকায় চিনা হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ভারতীয় সেনার প্রতিরোধের প্রসঙ্গ তুলে মোদী এদিন বলেন, ‘‘আমাদের বীর সেনারা দেখিয়ে দিয়েছেন তাঁরা কোনও অবস্থাতেই ভারতমাতার গৌরবে আঁচ আসতে দেবেন না।’’ শহিদ জওয়ানদের আত্মবলিদানকে স্মরণে রেখে প্রত্যেক ভারতবাসীকে দেশরক্ষার শপথ নিতেও আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: কালো ত্রিপলের নয়া চিনা ছাউনি, গালওয়ানের নতুন ছবি

রবিবার এই প্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্যে এসেছে লাদাখে চিনা হামলায় শহিদ সেনাদের পরিবারের কথাও। তিনি বলেন, ‘‘আপনারা দেখেছেন শহিদ সেনাদের বাবা-মায়েরা বলেছেন, তাঁদের অন্য সন্তানেরাও সেনাবাহিনীতে যোগ দেবেন। বিহারের শহিদ জওয়ান কুন্দন কুমারের বাবা বলেছেন, তিনি তাঁর নাতিকেও দেশরক্ষার কাজে পাঠাতে চান।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন