বালাকোট অভিযানের পরে কেন্দ্র ও বিজেপির নানা ‘সূত্র’ থেকে আসছিল নিহত জঙ্গির সংখ্যা। বালাকোট অভিযানে ক’জন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে তা নিয়ে বিরোধীরা সরব হয়েছেন বারবার। তবে গুজরাতের সভায় বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ ছাড়া আর কেউ প্রকাশ্যে নিহত জঙ্গিদের সংখ্যার উল্লেখ করেননি। এ বার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভি কে সিং এই প্রসঙ্গে বিরোধীদের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন। বললেন, ‘মশা কামড়ালে কীটনাশক প্রয়োগ করে মেরে ফেলতে হয়। কটা মশা ছিল তা গুনে কোনও লাভ নেই।’

ভি কে সিং প্রাক্তন সেনাপ্রধান ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তিনি একটি টুইটে বুধবার বলেন, ‘‘গতকাল রাত সাড়ে তিনটে নাগাদ ঘরে প্রচুর মশা ঢুকে পড়েছিল। আমি তাই কীটনাশক ব্যবহার করে মশাগুলোকে মারলাম। এ বার আমি কী করব? ঘুমাতে যাব না কি কটা মশা মরল স্প্রে করার পর সেটা গুনতে শুরু করব?’’

সংখ্যা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী চুপ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী চুপ, সেনাও বলছে গোনাটা তাদের কাজ নয়। এমনকি, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নির্মলা সীতারমনও নির্দিষ্ট কোনও সংখ্যা জানাননি।

আরও পড়ুন: জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের ছেলে ও ভাই আটক, দাবি ইমরান সরকারের​

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ অবশ্য সম্প্রতি অসমের ধুবুড়িতে গিয়ে বলেছেন, ‘‘এনটিআরও জানিয়েছে, হামলার আগে (জঙ্গি ঘাঁটিতে) তিনশো মোবাইল সক্রিয় ছিল।

 

ওই তিনশো মোবাইল কি গাছেরা ব্যবহার করছিল?’’ কিন্তু নিহতের সংখ্যা স্পষ্ট করেননি রাজনাথও। উল্টে বিরোধীদের তোপ দেগে বলেন, ‘‘আজ নয় কাল নিহতের সংখ্যা খোলসা হবে। বোমা ফেলার পরে পাইলটেরা কি নেমে এক-দুই-তিন করে মৃতদেহ গুনে আসতেন?’’ 

আরও পড়ুন: গোঁফেই আটকে পৌরুষ, আছে পুলিশদের জন্য উৎসাহ ভাতাও

এদিকে সূত্র বলছে, নিহত জঙ্গির সংখ্যা বলে দিয়ে নিজের দলেই এখন সামান্য ‘একা’ অমিত শাহ। সেই প্রসঙ্গে ভি কে সিং বলেছিলেন, নিশ্চিত সংখ্যাটা বলা কখনও সম্ভব নয়। আনুমানিক একটা সংখ্যা বলা যেতে পারে। এর পরই বুধবার সকালে একটি টুইট করেছেন ভি কে সিং। যেখানে জঙ্গিদের মৃত্যুকে মশা মারার সঙ্গেই তুলনা টেনেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

.