• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পাক অধিকৃত গিলগিট-বাল্টিস্তানে নির্বাচনের নির্দেশ, তীব্র প্রতিবাদ জানাল ভারত

Gilgit-Baltistan
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

পাক অধিকৃত গিলগিট ও বাল্টিস্তান প্রদেশের চরিত্র পরিবর্তনের চেষ্টার তীব্র প্রতিবাদ জানাল ভারত। আগামী সেপ্টেম্বরে সেখানে সাধারণ নির্বাচন করানোর নির্দেশ দিয়েছে পাক সুপ্রিম কোর্ট। যত দিন পর্যন্ত নির্বাচন না হচ্ছে, তত দিন অন্তর্বর্তিকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার গড়ে শাসনকার্য পরিচালনার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর বিরুদ্ধেই তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারত সরকার। জানিয়ে দিয়েছে, সম্পূর্ণ বেআইনি ভাবে গিলগিট ও বাল্টিস্তান জবরদখল করে রেখেছে পাকিস্তান। তাই সেখানে কোনওরকম প্রশাসনিক পরিবর্তন ঘটানোর অধিকার নেই পাক সরকারের।

ইমরান খান সরকারের আবেদনে সাড়া দিয়ে গত বৃহস্পতিবার গিলগিট ও বাল্টিস্তানের প্রশাসনিক কাঠামো সংক্রান্ত ২০১৮ সালের আইনে সংশোধন ঘটায় পাক সুপ্রিম কোর্ট। সেখানে নির্বাচন করানোর নির্দেশ দেন প্রধান বিচারপতি গুলজার আহমেদ নেতৃত্বাধীন সাত বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। সে দেশের সংবাদমাধ্যম সূত্রে বিষয়টি সামনে আসতেই তীব্র আপত্তি জানিয়েছে ভারতীয় বিদেশমন্ত্রক। দিল্লিতে এক অভিজ্ঞ পাক কূটনীতিকের কাছে প্রতিবাদ জানিয়ে বলা হয়েছে, কেন্দ্রশাসিত জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখের সমগ্র এলাকা, যার মধ্যে গিলগিট-বাল্টিস্তানও পড়ে, তা ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। বেআইনি ভাবে গিলগিট-বাল্টিস্তান জবরদখল করে রেখেছে পাকিস্তান। তাই সেখানে প্রশাসনিক বদল ঘটানো পাক কোর্টের এক্তিয়ারের মধ্যেই পড়ে না।

কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রকের তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘‘জম্মু-কাশ্মীরের যে বিস্তীর্ণ এলাকা পাকিস্তান বেআইনি ভাবে দখল করে রেখেছে, সেখানে কোনওরকম প্রশাসনিক পদক্ষেপ এবং পরিবর্তন বরদাস্ত করা হবে না। বরং ওই সমস্ত এলাকা অবিলম্বে খালি করে দেওয়া উচিত পাকিস্তানের।’’ বিদেশমন্ত্রক আরও জানায়, ‘‘জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখের যে বিস্তীর্ণ এলাকা পাকিস্তান জবরদখল করে রেখেছে, এই ধরনের পদক্ষেপ করে তা ঢাকা দেওয়া যাবে না। গত সাত দশক ধরে সেখানকার মানুষের মানবাধিকার লঙ্ঘন করে আসছে পাকিস্তান। তাঁদের স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে। চালানো হয়েছে শোষণ। এর কোনও কিছুই লুকিয়ে রাখা যাবে না।’’

আরও পড়ুন: মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত ১৩ হাজার ছুঁইছুঁই, করোনায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৭২ জনের​

আরও পড়ুন: পরিযায়ী শ্রমিকদের ট্রেনের ভাড়া মেটাবে কংগ্রেস, ঘোষণা সনিয়া গাঁধীর​

তবে শুধু ভারত সরকারই নয়, পাকিস্তান মানবাধিকার কমিশনের তরফেও ইমরান খান সরকারের এই পদক্ষেপের তীব্র সমালোচনা করা হয়েছে। জানিয়ে দিয়েছে, অধিকৃত কাশ্মীরের অন্তর্গত গিলগিট-বাল্টিস্তানকে বেআইনি ভাবে দখল করে রাখা হয়েছে। মানবাধিকার লঙ্খন নিয়ে বৃহস্পতিবার যে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে তারা, তাতে বলা হয়েছে, ভারত সরকার জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা খর্ব করায়, সমালোচনায় সরব হয়েছে পাকিস্তান। কিন্তু তাদের সমালোচনা করা সাজে না। কারণ দখল করে রাখা গিলগিট-বাল্টিস্তানকে পাক সরকার কোনও বিশেষ মর্যাদাই দেয়নি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন