• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কোলাম এঁকে প্রচারে কানিমোঝিরাও

Kanimozhi
ডিএমকে নেত্রী তথা সাংসদ কানিমোঝি। ছবি: সংগৃহীত।

Advertisement

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ও নাগরিক পঞ্জির (এনআরসি) বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে গত কাল কোলাম বা আলপনা আঁকার জন্য তামিলনাড়ুতে আটক করা হয়েছিল পাঁচ জনকে। আজ তামিল ঐতিহ্যবাহী সেই কোলামকেই হাতিয়ার করে শাসক দল এডিএমকে ও কেন্দ্র বিরোধী ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ল রাজ্যে। তাতে যোগ দিলেন বিরোধী নেতা-নেত্রীরাও। 

আজ তামিলনাড়ুর বিভিন্ন প্রান্তে আলপনা দিয়ে সিএএ ও এনআরসি-র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন রাজ্যবাসী। বাদ যাননি ডিএমকে নেত্রী তথা সাংসদ কানিমোঝিও। গত কাল রাতে বেসান্ত নগরে তাঁর বাড়ির সদর দরজার বাইরে দু’টি বড় কোলাম এঁকে সিএএ-বিরোধী বার্তা দেন তিনি। সাধারণত, কোলাম চালের গুঁড়ো বা চুনাপাথরের গুঁড়ো দিয়ে দেওয়া হলেও, বৃষ্টিতে উঠে যেতে পারে এই আশঙ্কায় আলপনা দেওয়া হয় রং দিয়ে। একই কোলাম দেখা যায় আর এক ডিএমকে প্রধান এম কে স্টালিনের বাড়ির সামনে। সিএএ-বিরোধী কোলাম আঁকা হয় করুণানিধির বাড়ির বাইরেও। পাশাপাশি, আজ সকাল থেকে ‘ডিএমকে কোলাম প্রোটেস্ট’ বা ‘কোলাম এগেনস্ট সিএএ’ ট্রেন্ডিং শুরু হয় টুইটারে। স্ট্যালিন টুইট করেছেন, ‘‘শাসক দল এডিএমকে কেন্দ্রের ক্রীতদাসে পরিণত হয়েছে। রঙ্গোলি আঁকলেও কোপে পড়তে হচ্ছে।’’

আজ সকাল থেকেই ‘#কোলাম-প্রোটেস্ট’ লিখে আলপনার বিভিন্ন ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। দীপক সতীশ নামে এক ব্যক্তি লেখেন, ‘‘কোয়ম্বত্তূরের শ্রী ভিগনেশ নগরের ২০ জন বাসিন্দা সিএএ বিরোধিতায় আলপনা এঁকেছেন বাড়ির দরজায়।’’ গায়ত্রী নামে এক মহিলা একাধিক ছবি পোস্ট করে টুইট করেছেন, ‘‘তামিলনাড়ুর পুরুষরাও লিঙ্গবৈষম্য ভেঙে আমাদের সংস্কৃতি ও সংবিধান রক্ষার জন্য কোলাম আঁকছেন। কেউ আবার লিখেছেন, ‘‘কোলাম আমাদের জন্মগত অধিকার। তা কেড়ে নেওয়া যাবে না।’’

আরও পড়ুন: ‘চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ’ রাওয়তই

গত কাল সিএএ বিরোধী বার্তা দিয়ে বাড়ির সামনে কোলাম আঁকায় বেসান্ত নগরের বাসিন্দা চার মহিলা ও এক জন পুরুষকে আটক করে চেন্নাই পুলিশ। তাঁদের থানায় নিয়ে যাওয়ার সময়ে যে দু’জন আইনজীবী সঙ্গে যান, তাঁদেরও আটকে রাখা হয় বলে অভিযোগ। ওই সাত জনকে বেসান্ত নগর থানার পাশে একটি কমিউনিটি হলে আটকে রাখা হয়। ধৃতদের অভিযোগ, কোলাম তাঁদের ঐতিহ্যবাহী প্রথা। তা আঁকতেও তাঁরা বাধা পাচ্ছেন। যদিও ওই বাসিন্দাদের আটক করার নির্দেশ দিয়েছেন যিনি, চেন্নাই পুলিশের সেই অ্যাসিসট্যান্ট কমিশনার বলেছেন, ‘‘এই রকম ছোট দলই এক সময়ে বড় হয়ে আইনশৃঙ্খলার ক্ষতি করবে।’’ 

পাল্টা প্রচার করছেন বিজেপি সমর্থকেরাও। কোলামের সঙ্গে ‘দ্রুত এনআরসি-সিএএ’ চাই বার্তা দিয়ে বিভিন্ন ছবি পোস্ট করছেন তাঁরা। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন