‘কলপ, ফেসিয়াল করে যুবতী সাজছেন’, মোদীকে কটাক্ষ করায় মায়াবতীকে আক্রমণ বিজেপির
সম্প্রতি  টুইটারে নিজের নামের আগে চৌকিদার জুড়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তা নিয়ে মঙ্গলবার সকালে তাঁকে কটাক্ষ করেন মায়াবতী।
mayawati

মায়াবতী। —ফাইল চিত্র।

শিয়রে লোকসভা নির্বাচন। তার আগে রাজনৈতিক মহলে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে পালা চলছেই। আর কখনও কখনও তা শালীনতার মাত্রাও ছাড়িয়ে যাচ্ছে। এ বার সেই তালিকায় নয়া সংযোজন উত্তরপ্রদেশের রোহানিয়ার বিধায়ক সুরেন্দ্র নারায়ণ সিংহ। বহুজন সমাজ পার্টি নেত্রী মায়াবতীর উদ্দেশে কুমন্তব্য করেছেন তিনি।

সম্প্রতি  টুইটারে নিজের নামের আগে চৌকিদার জুড়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তা নিয়ে মঙ্গলবার সকালে তাঁকে কটাক্ষ করেন মায়াবতী। নিজের টুইটার হ্যান্ডলে লেখেন, ‘মোটেই সাদামাটা জীবনযাপন করেন না প্রধানমন্ত্রী মোদী। বরং রাজা-বাদশার মতোই দিন কাটে তাঁর। তবে নিজের স্বার্থে গতবার লোকসভা নির্বাচনের সময় চা-ওয়ালা হয়ে গিয়েছিলেন। এ বার আবার নিজেকে চৌকিদার বলে প্রচার করছেন। বিজেপির আমলে দেশ সত্যিই বদলাচ্ছে। সাবাশ!’

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়ছে মায়াবতীর বহুজন সমাজ পার্টি।  বিজেপিকে পরাজিত করতে পুরনো তিক্ততা ভুলে অখিলেশ যাদব ও সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে জোট গড়েছেন তিনি। বিরোধী নেত্রীর মুখে মোদীর এই সমালোচনা সইতে পারেননি সুরেন্দ্র নারায়ণ সিংহ। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে তাই মায়াবতীকে তুলোধোনা করতে নেমে পড়েন তিনি। কিন্তু সেখানেই শালীনতার সীমা ছাড়িয়ে যান তিনি। রাজনীতির ময়দানে মায়াবতীর ব্যক্তিগত জীবন টেনে এনে বলেন, ‘‘মায়াবতী নিজে রোজ ফেসিয়াল করান। তা সত্ত্বেও আমাদের নেতাকে বিলাসী  বলেন কোন আক্কেলে? ভাল জামাকাপড় পরা বিলাসিতা নাকি? বিলাসিতা বরং মায়াবতী-ই করেন।  চুল পেকে গিয়েছে বহুদিন।  অথচ কলপ লাগিয়ে আজও নিজেকে যুবতী প্রমাণ করার চেষ্টা করছেন।  বয়স ষাট পেরিয়ে গেলেও চুল কালো করে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।’’

সুরেন্দ্র নারায়ণ সিংহের মন্তব্য।

আরও পড়ুন: সমঝোতার জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় কংগ্রেসকে, ১৩ আসনে প্রার্থী ঘোষণা বামেদের​

আরও পড়ুন: আর্থিক সঙ্কটে জেট, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলিকে এগিয়ে আসতে বলল সরকার​

সুরেন্দ্র নারায়ণ সিংহের মন্তব্য নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও বিবৃতি দেননি মায়াবতী। তবে এর আগেও বিজেপির  অশালীন আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে একটি সভায় তাঁকে ‘নারীজাতির কলঙ্ক’ বলে উল্লেখ করেন উত্তরপ্রদেশের আর এক বিজেপি বিধায়ক সাধনা সিংহ। ‘মহিলা না পুরুষ বোঝা মুশকিল’ এমনও বলতে শোনা যায় মুঘলসরাইয়ের ওই বিধায়ককে। এই মন্তব্যের জেরে সেইসময় তাঁর বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে  পদক্ষেপ করে জাতীয় মহিলা কমিশন।

(কী বললেন প্রধানমন্ত্রী, কী বলছে সংসদ- দেশের রাজধানীর খবর, রাজনীতির খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত