শেষ দফার ভোট এগোতেই ভাসছে বুথফেরত সমীক্ষার গুঞ্জন, টুইটার থেকে পোস্ট সরানোর নির্দেশ কমিশনের
জনপ্রতিনিধিত্ব আইনের ১২৬ ধারায় বলা হয়েছে, কোনও ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান মুদ্রণ বা বৈদ্যুতিন মাধ্যমে কোনও ধরনের এক্সিট পোলের ফলাফল প্রকাশ করতে পারবে না।
GFX

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

শেষ দফার ভোট যত এগিয়ে আসছে, ভাসছে নানা রকম ভোট পরবর্তী সমীক্ষার ফলাফল। ১৯ মেসপ্তম দফার ভোট শেষের আগে বুথফেরত সমীক্ষা প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের। কিন্তু সে সব এড়িয়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় গুঞ্জন, গুজব ছড়াচ্ছে।এমনই একটি পোস্টের জেরে এ বার টুইটারকে সতর্ক করল নির্বাচন কমিশন। ওই পোস্ট-সহ ভোট পরবর্তী সমীক্ষা সংক্রান্ত সমস্ত পোস্ট সরিয়ে দেওয়ার দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কমিশনের কর্তারা।

যদিও সরকারি ভাবে এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি কমিশনের কোনও অধিকর্তা। তবে কমিশনের বর্ষীয়ান এক আধিকারিক বলেছেন, ‘‘সার্বিক ভাবে আলাদা করে কোনও নির্দেশ দেওয়া হয়নি। নির্দিষ্ট একটি পোস্টকে কেন্দ্র করে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে টুইটার কর্তৃপক্ষকে। তবে তার আগেই ওই পোস্টটি নিজেই সরিয়ে নিয়েছেন ওই ব্যক্তি।’’

কমিশনের ওই কর্তার মতে, নির্বাচনী নির্ঘণ্ট ঘোষণার পর ভোটগ্রহণের প্রথম দিন থেকে শেষ হওয়ার আগে পর্যন্ত এক্সিট পোল বা বুথফেরত সমীক্ষা প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়ে যায়। তাই আলাদা করে কোনও নির্দেশ দেওয়ার প্রয়োজন হয় না। তবে কেউ এই ধরনের সমীক্ষা প্রকাশ করলে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ‘ষড়যন্ত্র বিজেপির নির্দেশেই, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার পুরস্কার দেওয়া হল ওদের’

আরও পড়ুন: রাজ্যে প্রচার বন্ধ আজই রাত ১০টায়, সরানো হল স্বরাষ্ট্রসচিবকে

জনপ্রতিনিধিত্ব আইনের ১২৬ ধারায় বলা হয়েছে, কোনও ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান মুদ্রণ বা বৈদ্যুতিন মাধ্যমে কোনও ধরনের এক্সিট পোলের ফলাফল প্রকাশ করতে পারবে না। রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভোট গ্রহণের শুরুর দিন থেকে শেষ দিন ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার আধঘণ্টা পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকে।নিয়মভঙ্গ করলে দু’বছর পর্যন্ত জেল অথবা জরিমানা এবং দুই-ই হতে পারে।

এ বছর লোকসভা ভোট শুরু হয়েছে ১১ এপ্রিল। ৭ দফায় ভোটগ্রহণ পর্ব এখনও শেষ হয়নি। অন্তিম দফার ভোটগ্রহণ ১৯ মে। এই ১৯-মের আগে পর্যন্ত ভোট পরবর্তী সমীক্ষা প্রকাশ করা যায় না। ভোটগণনা হবে ২৩ মে।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত