বুথফেরত সমীক্ষার গুজবে কান দেবেন না, স্ট্রং রুম পাহারা দিতে কর্মীদের নির্দেশ প্রিয়ঙ্কার
দলীয় কর্মী-সমর্থকদের চাঙ্গা করতে সেই বুথফেরত সমীক্ষাকেই গুজব বলে ওড়ালেন প্রিয়ঙ্কা।
Priyanka Gandhi Vadra

ছবি: পিটিআই।

ভোটে না দাঁড়ালেও প্রচারে ছিলেন আগাগোড়াই। এ বার ভোট পরবর্তী কর্মকাণ্ডেও সক্রিয় হয়ে উঠলেন প্রিয়ঙ্কা। বুথফেরত সমীক্ষার ফল সামনে আসার পর মুষড়ে পড়া কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকদের চাঙ্গা করতে অডিয়ো বার্তা পাঠালেন দলের সাধারণ সম্পাদক। সেখানে বুথফেরত সমীক্ষার গুজবে কান না দিতে দলীয় কর্মীদের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

গতকালই এই অডিয়ো বার্তা প্রকাশ করেছেন প্রিয়ঙ্কা। সেখানে তিনি বলেছেন, ‘‘আমার প্রিয় কংগ্রেস কর্মী, বোন এবং ভাইয়েরা, গুজবে কান দেবেন না এবং বুথফেরত সমীক্ষার ফলাফলে হতাশ হবেন না। আপনাদের মনোবল ভেঙে দিতেই এই কৌশল নেওয়া হয়েছে। এই সময় সতর্ক থাকার সময়। ভোটগণনা কেন্দ্র এবং স্ট্রং রুমের দিকে সতর্ক নজর রাখুন। আমাদের চেষ্টার ফল মিলবেই, এইটুকু আত্মবিশ্বাস আমাদের আছে।’’

গত রবিবার শেষ দফার ভোটগ্রহণের পরই বুথফেরত সমীক্ষার ফল সামনে আনে বিভিন্ন সমীক্ষা সংস্থা। প্রায় প্রতিটি সমীক্ষারই ইঙ্গিত, সরকার গড়ার লক্ষ্যে বাকিদের থেকে অনেকটাই এগিয়ে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট। সদ্য ক্ষমতায় আসা রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ এবং ছত্তীসগঢ়েও কংগ্রেসের ভোটব্যাঙ্কে থাবা বসিয়েছে বিজেপি, এমনটাই বলা হয়েছে বুথফেরত সমীক্ষায়। যদিও দলীয় কর্মী-সমর্থকদের চাঙ্গা করতে সেই বুথফেরত সমীক্ষাকেই গুজব বলে ওড়ালেন প্রিয়ঙ্কা।

আরও পড়ুন: বুথ ফেরত সমীক্ষা উড়িয়ে তৎপর নায়ডুরা

এর আগে বুথফেরত সমীক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তিনিও বুথফেরত সমীক্ষাকে ‘গসিপ’ বলে তোপ দেগেছিলেন। একই সঙ্গে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলে বলেছিলেন, ‘‘আমি এই বুথফেরত সমীক্ষার গসিপে বিশ্বাস করি না। গসিপ ছড়িয়ে দিয়ে হাজার হাজার ইভিএম পাল্টে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। আমি সমস্ত বিরোধী দলগুলিকে ঐক্যবদ্ধ, শক্তিশালী এবং সাহসী থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। এই লড়াই আমরা সবাই একসঙ্গে লড়ব।’’ দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করতে অনেকটা তাঁর দেখানো পথেই এবার হাঁটলেন প্রিয়ঙ্কা।

আরও পড়ুন: উচ্ছ্বাসে রাশ বিজেপিতে, দিনভর চুপ রইলেন মোদী-শাহ

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত