টম ভডক্কন বড় নেতা নন, অস্বস্তি ঢাকতে বললেন রাহুল
সাংবাদিকরা প্রশ্ন করতেই রাহুল বলেন, ‘‘না না, টম ভডক্কন এমন কিছু বড় নেতা নন’।
Rahul Gandhi

টম ভডক্কন বড় নেতা নন, মন্তব্য রাহুল গাঁধীর। —ফাইল চিত্র

লোকসভা ভোটের মুখে কংগ্রেসের হাত ছেড়ে বৃহস্পতিবারই বিজেপিতে যোগ দিয়ে কংগ্রেসের অস্বস্তি বাড়িয়েছেন সনিয়া গাঁধীর ঘনিষ্ঠ টম ভডক্কন। সেই অস্বস্তি ঢাকতে সেই ভডক্কনকে আমলই দিলেন না রাহুল গাঁধী। ছত্তীসগঢ়ে একটি জনসভার ফাঁকে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে রাহুল বলেন, ‘ভডক্কন বড় নেতা নন’।

প্রায় দু’দশক কংগ্রেস রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত থাকার পর দল ছেড়েছেন টম ভডক্কন। কংগ্রেসে পরিবারতন্ত্রের অভিযোগ তুলেছেন সনিয়া তথা গাঁধী পরিবারের ঘনিষ্ঠ এই কংগ্রেস নেতা। পাশাপাশি পাকিস্তানে বায়ু সেনার অভিযানের পর কংগ্রেসের অবস্থান নিয়েও ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন ভডক্কন। স্বাভাবিক ভাবেই অস্বস্তি বেড়েছে হাত শিবিরের। আবার মাস-দু’য়েক আগেই এই ছত্তীসগঢ়ের বিধানসভা ভোটে বিজেপিকে হারিয়ে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতা দখল করেছে কংগ্রেস। কিন্তু সেই রাজ্যেও অস্বস্তি পিছু ছাড়ল না কংগ্রেস সভাপতির।

এ দিন সে রাজ্যে একটি নির্বাচনী জনসভায় যোগ দেন রাহুল। জনসভায় মোদী সরকারের বিরুদ্ধে রাফাল, চাকরি-সহ একাধিক ইস্যুতে তোপ দাগেন কংগ্রেস সভাপতি। কিন্তু সেই সভাতেই অস্বস্তির মুখেও পড়তে হয়। সাংবাদিকরা প্রশ্ন করতেই রাহুল বলেন, ‘‘না না, টম ভডক্কন এমন কিছু বড় নেতা নন’।

আরও পডু়ন: পরীক্ষা করে জানান সব ভিভিপ্যাট ঠিক আছে কিনা, নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

আরও পড়ুন: সেনার পোশাকে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে বন্দুকবাজের হামলা, হত ৪৯, রক্ষা বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের

শুক্রবারই ওড়িশার বারগড়ে একটি জনসভাতেও যোগ দেন কংগ্রেস সভাপতি। সেখানে নবীন পট্টনায়কের বিরুদ্ধে কর্মসংস্থান নিয়ে আক্রমণ করেন রাহুল। মোদীর সঙ্গে এক পংক্তিতে বসিয়ে রাহুল প্রশ্ন তোলেন, ‘‘রাজ্যের বেকার যুবক-যুবতীদের চাকরির জন্য কী করেছেন নবীন পট্টনায়ক?’’ সভায় জনতার উদ্দেশে রাহুল বলেন, ‘‘আপনারা কেউ বলতে পারেন, নবীন পট্টনায়ক বা নরেন্দ্র মোদী আপনাদের কাউকে চাকরি দিয়েছেন? কিন্তু মোদীজি দুর্নীতি করেছেন এবং অনিল অম্বানীকে ৩০ হাজার কোটি টাকা দিয়েছেন।’’

(ভারতের রাজনীতি, ভারতের অর্থনীতি- সব গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত