ট্রলি না থাকায় শয্যাশায়ী এক রোগীকে বিছানার চাদরে শুইয়ে টানতে টানতে এক্স-রে রুমে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠল হাসপাতালের এক কর্মীর বিরুদ্ধে। মধ্যপ্রদেশের জবলপুরের নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু হাসপাতালের এই ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনার ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ার পরই হাসপাতালের তিন জন কর্মীকে সাসপেন্ড করেছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সংবাদ সংস্থা এএনআই ভিডিয়োটি টুইট করেছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, হাসপাতালের মেঝেয় পড়ে রয়েছেন রোগী। তিনি একেবারেই শয্যাশায়ী। উঠে বসার ক্ষমতাটুকুও নেই। কিন্তু দ্রুত ওই রোগীকে এক্স-রে রুমে নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন ছিল। এর পরই দেখা যায়, হাসপাতালের এক কর্মী রোগী যে চাদরের উপরে শুয়ে ছিলেন, সেটারই একটা দিক ধরে টানতে শুরু করেন। এ ভাবে হাসপাতালের এক্স-রে রুমে পৌঁছন। পিছনে রোগীর এক আত্মীয়ও ছিলেন।

হাসপাতাল সূত্রের খবর, সেই সময় অতিরিক্ত ট্রলি ছিল না। ফলে নাকি বাধ্য হয়েই রোগীকে এ ভাবে টেনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। হাসপাতালে শুধু যে ট্রলির অভাব তা-ই নয়, ভিডিয়োয় এটাও দেখা গিয়েছে, অসংখ্য রোগী মেঝে শুয়ে রয়েছেন।

 

আরও পড়ুন:

দলে জোড়া পরিবর্তন? দেখে নিন ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের সম্ভাব্য একাদশ

‘সংসদ চলছে বলে নখ-দাঁতগুলো দেখতে পাচ্ছেন না’, মমতাকে হুঁশিয়ারি মুকুলের

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু হাসপাতালের ভিডিয়ো সামনে আসার পরই তুমুল সমালোচনা শুরু হয়েছে। হাসপাতালের ডিন নভনীত সাক্সেনা এই ঘটনায় সঙ্গে যুক্ত তিন কর্মীকে সাসপেন্ড করেছেন এবং ঘটনার পূর্ণ তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।