পিতৃত্বের পরিচয় পেতে উত্তরপ্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী নারায়ণ দত্ত তিওয়ারিকে টেনে নিয়ে গিয়েছিলেন কোর্টে। দীর্ঘ লড়াইয়ের পরে জেতেনও। এন ডি তিওয়ারির সেই ছেলে, ৩৯ বছর বয়সি রোহিত শেখর তিওয়ারি আজ মারা গিয়েছেন দিল্লিতে। রাজধানীর এক বেসকারি হাসপাতালে মৃত অবস্থাতেই তাঁকে নিয়ে আসা হয়। মৃত্যুর কারণ অস্পষ্ট।

দিল্লি পুলিশের এক শীর্ষ কর্তা জানান, রোহিতের নাক দিয়ে রক্তপাত হচ্ছিল। সে কথা বাড়ির এক জন কর্মী রোহিতের মা’কে জানান। সেই সময়ে রোহিতের মা গিয়েছিলেন হাসপাতালে। অ্যাম্বুল্যান্সে করে রোহিতকে যখন হাসপাতালে আনা হয়, তখন তিনি মৃত। এর পরেই রোহিতদের দক্ষিণ দিল্লির বাসভবনে তল্লাশি চালায় পুলিশ। 

এন ডি তিওয়ারির ছেলে হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার জন্য ২০০৭ সালে মামলা করে়ন রোহিত। সেই সময়েই সংবাদমাধ্যমের নজরে আসেন তিনি। শুরুতে এন ডি তিওয়ারি রোহিতকে নিজের ছেলে হিসেবে মানতে রাজি হননি। কিন্তু ডিএনএ পরীক্ষার পরে, আদালতের রায় বিপক্ষে যাওয়ায়, রোহিতকে নিজের ছেলে হিসেবে স্বীকার করে নিতে হয় তিওয়ারিকে। তত দিনে অবশ্য কেটে গিয়েছে সাতটি বছর। পরে তাঁর মা উজ্জ্বলাকে বিয়েও করেন তিনি। গত বছর অক্টোবরে মৃত্যু হয় কংগ্রেস নেতা এন ডি তিওয়ারির। 

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯