জম্মু-কাশ্মীরে আকাশসীমা লঙ্ঘন করে ভারতীয় সীমায় ঢুকে পড়ল একটি সন্দেহজনক পাক সেনার হেলিকপ্টার। পুঞ্চ সেক্টরে দুপুর সোয়া বারোটা নাগাদ ঘটনার পরই সীমান্তে তীব্র উত্তেজনা ছড়ায়। হেলিকপ্টারটিকে গুলি করে নামানোর চেষ্টা করেন সেনা জওয়ানরা। তবে তার আগেই ফের পাক আকাশসীমায় ঢুকে পড়ে কপ্টারটি।

সেনা সূত্রে খবর, রবিবার দুপুর ১২টা ১৩ মিনিটে আচমকাই পাক সেনার একটি হেলিকপ্টার দেখা যায় পুঞ্চের গুলপুর সেক্টরে। নিয়ন্ত্রণরেখার ভিতরে প্রায় ২৫০ মিটার ঢুকে আসে কপ্টারটি। সাদা রঙের ওই কপ্টারটি দেখেই চূড়ান্ত সতর্কতা নেয় সেনাবাহিনী। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই কপ্টার লক্ষ্য করে গুলি চালাতে শুরু করেন ভারতীয় সেনা জওয়ানরা। মিনিট পাঁচেক ভারতের আকাশে চক্কর কাটার পর ফের পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সীমায় ফিরে যায় সেটি। তবে সেনা সূত্রে জানানো হয়েছে, বিমান বিধ্বংসী ভারী কোনও অস্ত্র ব্যবহার করা হয়নি।

ঘটনার একটি ভিডিয়ো ছড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাতে দেখা যাচ্ছে, পুঞ্চের পাহাড়ি এলাকায় উড়ছে সাদা ওই কপ্টারটি। সেনা জওয়ানরা যে গুলি করে নামানোর চেষ্টা করছেন, ক্রমাগত সেই গুলির শব্দও শোনা যাচ্ছে ওই ভিডিয়োতে।

 

আরও পড়ুন: ‘ইমরানের সরকার নতুন মোড়কে পুরনো পাকিস্তান’, রাষ্ট্রপুঞ্জে ‘সন্ত্রাস’-গোলা নয়াদিল্লির​

আরও পড়ুন: বিদেশি অতিথির মানিব্যাগ চুরি করলেন পাক আমলা, ভিডিয়ো ভাইরাল

সীমান্ত চুক্তি অনুযায়ী, ভারত-পাক সীমান্তে নিয়ন্ত্রণ রেখার এক কিলোমিটারের মধ্যে কোনও হেলিকপ্টার ঢুকতে পারে না। ১০ কিলোমিটারের মধ্যে আসতে পারে না কোনও বিমান। জম্মু কাশ্মীর সীমান্তেও দুই দেশই এই নিয়ম মেনে চলে। তবে এদিন ভুল করে, নাকি পূর্ব পরিকল্পনা করেই কপ্টারটি ভারতীয় আকাশ সীমায় ঢুকেছিল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। পাকিস্তানের তরফেও এ নিয়ে কোনও বিবৃতি মেলেনি।