• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘আকাশ থেকে পড়বে না ৫ লক্ষ কোটির অর্থনীতি’, নির্মলার দাবি নিয়ে তির্যক মন্তব্য প্রণবের

Pranab Mukherjee
শুধু কি খাতায়কলমেই এগোচ্ছে অর্থনীতি, প্রশ্ন প্রণবের। ছবি: এএনআই

Advertisement

টার্গেট, ২০২৪ সালের মধ্যে দেশের অর্থনীতিকে ৫ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারে পৌঁছে দেওয়া। সংসদে বাজেট বক্তৃতায় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের এই দাবি নিয়েই এ বার জোরাল প্রশ্ন তুলে দিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি তথা তৎকালীন ইউপিএ সরকারের অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায়। দিল্লির একটি অনুষ্ঠানে তাঁর মন্তব্য, ‘‘৫ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারের অর্থনীতি আকাশ থেকে পড়বে না।’’ একইসঙ্গে, যোজনা কমিশন তুলে দেওয়ার প্রশ্নেও মোদী সরকারের সমালোচনা করেছেন তিনি।

সরকারের সমালোচক হিসেবে কখনই তেমন পরিচিতি নেই প্রণব মুখোপাধ্যায়ের। কিন্তু,   বৃহস্পতিবার, দিল্লিতে একটি অনুষ্ঠানে তিনি যেন ভিন্ন বার্তা দিলেন। এ দিন তিনি বলেন, ‘‘বাজেট পেশের সময় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, ২০২৪ সালে ভারতের অর্থনীতি ৫ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলার ছোঁবে। কিন্তু, এটা আকাশ থেকে পড়বে না। স্বাধীনতার পর যে পরিকাঠামো গড়ে তোলা হয়েছে, তা ব্রিটিশ শাসকরা তৈরি করেনি। ভারতীয়রাই বানিয়েছে।’’

৫ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারের অর্থনীতির প্রতিশ্রুতির কথা বারেবারেই শোনা গিয়েছে মোদীর গলায়। নির্মলার বাজেট বক্তৃতায় কার্যত সেই কথাই অনুরণিত হয়েছে। ১.৮ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারের অর্থনীতিতে পৌঁছতে ভারতের যে ৫০ বছরেরও বেশি সময় লেগেছে। সে কথা বাজেট বক্তৃতায় তুলে ধরে কংগ্রেসকে খোঁচা দেন নির্মলা। একসময় দেশের বিভিন্ন মন্ত্রকের দায়িত্ব সামলেছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। অর্থমন্ত্রকের দায়িত্বও পেয়েছিলেন তিনি। সেই প্রণবই নির্মলার প্রশ্নের উত্তর দিলেন বৃহস্পতিবার। এ দিন তিনি বলেন, ‘‘যাঁরা কংগ্রেসের ৫৫ বছরের শাসনকালের সমালোচনা করেন তাঁরা ভুলে গিয়েছেন যে আমরা কোথা থেকে শুরু করেছিলাম আর কোথায় শেষ করেছি। যদি দেশের অর্থনীতির পরিমাণ ৫ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলার হয়, তাহলে এটা ভাবতে হবে যে, শূন্য থেকে শুরু করে আমরাই দেশের অর্থনীতি ১.৮ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারে পৌঁছে দিয়েছিলাম।’’

আরও পড়ুন: দেশে ফিরতেই গ্রেফতার চার হাজার কোটির দুর্নীতিতে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী

এ দিন নতুন অস্ত্রও প্রয়োগ করেন প্রণব। তিনি বলেন, ‘‘যারা কংগ্রেস আমলের সমালোচনা করে তারা ভুলে যায়, ভারত স্বাধীনতার সময় কী ছিল, আর আমরা কতদূর এসেছি। আধুনিক ভারতের বিভিন্ন সংস্থা আমাদের প্রতিষ্ঠাতারাই তৈরি করেছেন। তাঁরা পরিকল্পিত অর্থনীতিতে বিশ্বাস করতেন। অথচ, যাঁরা তার বিরোধিতা করছেন তাঁরাই যোজনা কমিশন ভেঙে দিয়েছেন।’’ প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর যোজনা কমিশন তুলে দিয়ে নীতি আয়োগ তৈরি করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুন: তিনশোরও বেশি এনকাউন্টার করেছেন, ট্রিগার ছেড়ে এ বার রাজনীতিতে আসছেন ইনি

স্বাধীনতার পর, দেশের উন্নয়নের ভিত কী ভাবে গাঁথা হল এ দিন সেই ইতিহাস তুলে ধরেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। তিনি বলেন, ‘‘জওহরলাল নেহরু ও অন্যান্যরা আইআইটি, ইসরো, আইআইএম, ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা তৈরি করেছিলেন।’’ দেশের অর্থনীতিতে মনমোহন সিংহ ও নরসিমা রাওয়ের অবদানের কথাও তুলে ধরেন তিনি। এরপরই তাঁর মন্তব্য, ‘‘এই ভিতের উপরে দাঁড়িয়েই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী এখন দেশের অর্থনীতি একদিন ৫ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারে পৌঁছে দেওয়ার দাবি করছেন।’’

সকলকে চমকে দিয়েই ২০১৮ সালে নাগপুরে আরএসএসের সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। কিন্তু, বৃহস্পতিবার, দিল্লির অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে ইতিহাসের ভিন্ন পাঠ দিলেন সেই প্রণবই।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন