ঝাড়খণ্ডে এক মুসলিম যুবকে পিটিয়ে মারার ঘটনার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই সারা দেশ জুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠে। মারধরের সময় ওই ব্যক্তিকে দিয়ে ‘জয় শ্রী রাম’ বলানোরও জন্যও শুরু হয় বিতর্ক। এর পরই এক জন বিখ্যাত কার্টুনিস্ট এই ঘটনা নিয়ে একটি কার্টুন আঁকেন। সেই কার্টুনটি গত কাল থেকে ছড়িয়ে পড়েছে নেট দুনিয়ায়। তার পরই ভাইরাল হয়েছে সেটি। কেরলের কংগ্রেস সাংসদ শশী তারুরও ওই কার্টুনের ছবিটি শেয়ার করেছেন। সঙ্গে ক্যাপশন ‘জয় শ্রী রাম!’

ভাইরাল হওয়া সেই কার্টুনে দেখা যাচ্ছে, গাছে বেঁধে এক ব্যক্তিকে মারছেন এক দল উন্মত্ত জনতা। মারার সময় তাঁরা ওই ব্যক্তিকে ‘জয় শ্রী রাম’ বলার জন্য হুঙ্কার দিচ্ছেন। পাশেই কাঁধে তীর-ধনুক নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন ভগবান রাম। তিনি ‘জয় শ্রী রাম’ বলতে বলা সেই উন্মাদ দলের কাছে হাত জোড় করে কাতর আবেদন করছেন, ‘দয়া করে আমার নামে না।’

গত ১৮ জুন ঝাড়খণ্ডের সরাইকেলা-খরসোঁয়া জেলার ধক্তিদি গ্রামে মোটরবাইক চোর সন্দেহে ২৪ বছরের এক মুসলিম যুবককে ১৮ ঘণ্টা ধরে পেটায় এক দল দুষ্কৃতী। তবরেজ আনসারি নামের ওই যুবককে পেটানোর ভিডিয়ো ভাইরাল হয় নেটদুনিয়ায়। সেই ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, বেধড়ক মারতে মারতে ল্যাম্পপোস্টে বাঁধা ওই যুবককে‘জয় শ্রী রাম’, ‘জয় হনুমান’ বলতে বলছে ওই দুষ্কৃতী দল। এই ঘটনার প্রেক্ষিতেই আঁকা হয়েছে এই কার্টুনটি।

 

গণপিটুনির ঘটনার নিন্দা করার পাশাপাশি, রামের নাম নিয়ে নিরীহ মানুষকে পিটিয়ে মারার ঘটনায় স্বয়ং ভগবান রামও যে দুঃখিত সে কথাই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে ওই কার্টুনের মাধ্যমে। 

আরও পড়ুন:  রাজস্থান থেকে পালিয়ে যাওয়া কনে হরিয়ানায় ঘর বাঁধল লেসবিয়ান সঙ্গিনীর সঙ্গে!

আরও পড়ুন: বন্ধুর বউকে বিয়ে করতে বন্ধুকেই খুন, গ্রেফতার এক