• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিষাক্ত গ্যাস ছড়াচ্ছে পাকিস্তান! দিল্লির দূষণ নিয়ে অভিযোগ বিজেপি নেতার

Delhi pollution
দিল্লির পরিস্থিতির জন্য পাকিস্তানকে দোষারোপ। ছবি: এপি।

Advertisement

দূষিত বাতাসে ঢেকে গিয়েছে রাজধানী। পড়শি দেশ পাকিস্তান এবং চিনের উপর এ বার তার দায় চাপালেন উত্তরপ্রদেশের বিজেপি নেতা বিনীত আগরওয়াল সারদা। তাঁর দাবি, ভারতকে দেখে ঘাবড়ে গিয়ে চিন বার পাকিস্তানই দেশে বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে দিয়েছে। 

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কল্যাণে গতকাল থেকে একটু একটু করে দূষণের চাদর সরতে শুরু করেছে রাজধানীর উপর থেকে। তবে এখনও বিপদ পুরোপুরি কাটেনি বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে রাজধানীর দূষণ নিয়ে রাজনীতিকরাও পরস্পরকে দোষারোপ করে যাচ্ছেন।

তার মধ্যেই মঙ্গলবার সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে বিনীত আগরওয়াল সারদা বলেন, ‘‘যে বিষাক্ত হাওয়া বইছে, যে বিষাক্ত গ্যাসে ঢেকে গিয়েছে চারিদিক, হতে পারে কোনও পড়শি দেশ ছড়িয়ে দিয়েছে। আমাদের যারা ভয় পায়, তারাই এই কাণ্ড ঘটিয়ে থাকতে পারে। আমার তো মনে হয় চিন এবং পাকিস্তানই আমাদের ভয় পায়।’’ পাকিস্তান ভারতে বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়েছে কি না, তা অবশ্যই খতিয়ে দেখা উচিত বলেও মত তাঁর।

বিনীত আগরওয়াল সারদার বক্তব্য।

আরও পড়ুন: উরিতে নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে মাদকচক্রের হদিশ, এক মহিলা-সহ গ্রেফতার দুই

দ্বিতীয় বার নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটির নেতৃত্বে কেন্দ্রে বিজেপি জোট সরকার গড়ায় পাকিস্তান আরও ঘাবড়ে গিয়েছে, তাই এই ধরনের আচরণ করছে বলেও দাবি করেন বিনীত । প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে মহাভারতের কৃষ্ণ এবং অর্জুনের সঙ্গেও তুলনা করেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘‘আজ পর্যন্ত যত বার যুদ্ধ হয়েছে, ভারতের সামনে মুখ থুবড়ে পড়েছে পাকিস্তান। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহ আসার পর আরও হতাশ হয়ে পড়েছে ওই দেশ। কৃষ্ণ এবং অর্জুন মিলে সব সামলাচ্ছেন।’’

আরও পড়ুন: বাতিল হওয়া নোটে কেনা শশিকলার ১৬০০ কোটির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল আয়কর দফতর​

রাজধানীর দমবন্ধ করা পরিস্থিতির জন্য শুরু থেকেই পড়শি দুই রাজ্য হরিয়ানা এবং পঞ্জাবকে দায়ী করে আসছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল। সেখানে ফসলের গোড়া পোড়ানোতেই গোটা দিল্লি ধোঁয়ায় ঢেকে গিয়েছে বলে অভিযোগ তাঁর। কিন্তু তা মানতে রাজি নন বিনীত। কৃষকরা দেশের মেরুদণ্ড, তাদের এ ভাবে দোষারোপ করা উচিত নয় বলে মত তাঁর। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন