• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘খুন’ হওয়া তরুণী প্রেমিকের বাড়িতে, ১৮ মাস ধরে জেল খাটছেন বাবা-দাদা!

representative
প্রতীকী ছবি।

মেয়েকে ‘খুন’ করার অভিযোগে বাবা, দাদা ১৮ মাস ধরে জেল খাটছেন। কিন্তু সম্প্রতি খুন হওয়া সেই মেয়েকে খুঁজে পাওয়া গেল তাঁর প্রেমিকের বাড়িতে। প্রেমিককে বিয়ে করে সংসার করছেন ওই তরুণী! এই ঘটনা সামনে আসতেই উত্তরপ্রদেশের আমরোহা জেলার পুলিশি তদন্ত প্রশ্নের মুখে পড়েছে। বিনা দোষে জেল খাটানোয় পুলিশ-বিচারবিভাগকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন তরুণীর পরিবারের লোকজন।

ঘটনার সূত্রপাত ২০১৯-এর ৬ ফেব্রুয়ারি। ওই দিন মধুপুর গ্রামের বাসিন্দা ওই তরুণীর দাদা রাহুল পুলিশকে জানান তাঁর বোন কমলেশকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এই ঘটনায় অভিযুক্ত হিসাবে ১৮ ফেব্রুয়ারি আদমপুর থানার পুলিশ তরুণীর বাবা সুরেশ, দাদা রূপকিশোর ও পাশের গ্রামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। পুলিশ জানায় হারিয়ে যাওয়া ওই তরুণীকে খুন করা হয়েছে। তরুণীর পোশাক ছাড়াও ‘খুনের অস্ত্র’ও উদ্ধার করেছিল আদমপুর থানার পুলিশ।

কিন্তু সম্প্রতি রাহুল জানিয়েছেন, তাঁর পরিবারের লোকজন কমলেশকে পাওরায়া গ্রামে খুঁজে পেয়েছেন। প্রেমিক রাকেশের বাড়িতেই থাকেন তাঁর বোন। ২০১৯-এ রাকেশের সঙ্গেই পালিয়ে গিয়েছিলেন কমলেশ। ইতিমধ্যে তাঁদের একটি সন্তানও হয়েছে।

আরও পড়ুন: বিমানবন্দর নিয়ে আগেও সতর্ক করা হয়েছিল, উদ্ধার হল ব্ল্যাক বক্স

এর পরেই আদমপুর পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে ওই তরুণীর পরিবার। তাদের দাবি, কমলেশকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার করে বেদম পেটানোর পর জোর করে পুলিশ খুনের কথা ‘স্বীকার’ করায় তরুণীর বাবা, দাদাকে। মিথ্যা মামলা থেকে তাঁদের মুক্তি দিয়ে আদমপুর থানার পুলিশের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে ওই তরুণীর পরিবারের লোকজন।

তবে সেখানকার পুলিশের তরফে এ ব্যাপারে কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: স্বস্তি দিচ্ছে না সংক্রমণের হার, দেশে নতুন আক্রান্ত ৬১৫৩৭

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন