• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ইদের সকালে পুলওয়ামায় বাড়িতে ঢুকে মহিলাকে গুলি করে খুন করল জঙ্গিরা

Pulwama
পুলওয়ামায় বাড়িতে ঢুকে মহিলাকে গুলি করে খুন করল জঙ্গিরা। —ফাইল ছবি

ফের জঙ্গিদের উপস্থিতিতে শিরোনামে পুলওয়ামা। ইদের সকালে জোর করে বাড়িতে ঢুকে এক মহিলাকে গুলি করে খুন করল জঙ্গিরা। মৃত নাগিনা বানোর পাশাপাশি গুলিবিদ্ধ আরও এক জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তবে কী কারণে এই হামলা তা এখনও স্পষ্ট নয় পুলিশের কাছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ ও গোয়েন্দা বিভাগ। জঙ্গিদের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আজ বুধবার সকালে ওই বাড়িতে জোর করে ঢুকে পড়ে জঙ্গিদের একটি দল। কিছুক্ষণের মধ্যেই বাড়ির দু’জনকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে পালিয়ে যায় জঙ্গিরা। ঘটনাস্থলেই মারা যান নাগিনা বানো। আহত হন সুলতান নামে ওই বাড়িরই অন্য এক যুবক। গুলির শব্দে ছুটে আসেন পাড়া প্রতিবেশীরা। সুলতানকে তাঁরাই হাসপাতালে পাঠান। হাসপাতাল সূত্রে খবর, গুলির ক্ষত নিয়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন সুলতান। পরে পুলিশ পৌঁছে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্ত শুরু করে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সিআরপিএফ কনভয়ে আত্মঘাতী জঙ্গি হানার পর থেকেই পুলিশ-প্রশাসনের নজরে পুলওয়ামা। যদিও তার পরও একাধিক জঙ্গি হানা বা জঙ্গিদের সঙ্গে গুলি বিনিময়ের ঘটনা সামনে এসেছে। এমনকি, পুলিশ-সেনার তাড়া খেয়ে বাড়িতে ঢুকে পড়া বা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে বাড়ি উড়িয়ে দেওয়ার মতো ঘটনাও ঘটেছে। কিন্তু বিনা প্ররোচনায় বা কার্যত উদ্দেশ্যবিহীন ভাবে এ ভাবে বাড়িতে ঢুকে উপত্যকায় গুলি করে খুন করার নজির সাম্প্রতিক অতীতে নেই।

আরও পডু়ন: সারদার পর নারদ কাণ্ডেও সক্রিয় সিবিআই, আইপিএস অফিসার মির্জাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব

আরও পড়ুন: জোড়া ঘূর্ণাবর্ত, সঙ্গে নিম্নচাপ, রাজ্য জুড়ে স্বস্তির বৃষ্টি, বর্ষণ বাড়বে আরও, পূর্বাভাস আলিপুরের

কী কারণে হামলা তা খতিয়ে দেখতে শুরু করেছেন পুলিশ ও গোয়েন্দা বিভাগের আধিকারিকরা। স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে এবং নিজস্ব সূত্রে জঙ্গিদের গতিবিধি জানার চেষ্টা চালাচ্ছেন গোয়েন্দারা। অন্য বাড়িতেও একই রকম হামলার আশঙ্কায় আতঙ্কিত এলাকাবাসী। হামলার পিছনে কোন জঙ্গিগোষ্ঠী রয়েছে, তা নিয়েও শুরু হয়েছে খোঁজখবর। তবে একটি সূত্রের দাবি, গোটা বিষয়ে পুলিশ এখনও পর্যন্ত কার্যত অন্ধকারেই।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন