আরও একটি গর্বের দিন বাঙালির। মোট ৬ সদস্যের জাতীয় পরিসংখ্যান কমিশন (এনএসসি)-এর চেয়ারম্যান পদটি তো বটেই, আরও দুই বিশিষ্ট বাঙালি পরিসংখ্যানবিদ এলেন কমিশনে। কমিশনে এক সঙ্গে তিন জন বাঙালি এর আগে আসেননি কখনও।

জাতীয় পরিসংখ্যান কমিশনের চেয়ারম্যান হলেন ‘পদ্মশ্রী’ জয়ী দেশের বিশিষ্ট পরিসংখ্যানবিদ অধ্যাপক বিমল কুমার রায়। তাঁর মনেয়াদ তিন বছরের। সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন আরও দুই বাঙালি পরিসংখ্যানবিদ। অধ্যাপক পুলক ঘোষ ও অধ্যাপক গুরুচরণ মান্না।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার নিয়োগ কমিটি শুক্রবার কমিশনের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের নাম ঘোষণা করেছে। ৬ সদস্যের কমিশনে এসেছেন বিশিষ্ট পরিসংখ্যানবিদ অধ্যাপক কিরণ পাণ্ড্য। আর পদাধিকারবলে কমিশনে রয়েছেন ‘নীতি আয়োগ’-এর সিইও অমিতাভ কান্ত ও কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান মন্ত্রকের সচিব প্রবীণ শ্রীবাস্তব।

আরও পড়ুন- সূর্যের রহস্যভেদ, আন্দিজের পাহাড়চূড়ায় উড়ল বাঙালির বিজয়পতাকা!​

আরও পড়ুন- মুঠো মুঠো সোনা, প্ল্যাটিনাম ছড়িয়ে পড়ছে মহাকাশে! ঘটকালি করছে ব্ল্যাক হোল​

নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশনের কৃতী ছাত্র বিমল বাবু ২০১০ থেকে ২০১৫, এই পাঁচ বছর অধিকর্তার দায়িত্বে ছিলেন ইন্ডিয়ান স্ট্যাটিস্টিক্যাল ইনস্টিটিউটে (আইএসআই)। পরিসংখ্যান তত্ত্বে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ২০১৫-য় তিনি পান ‘পদ্মশ্রী’ খেতাব। অধিকর্তা-পদে মেয়াদ ফুরনোর পর এখন আইএসআইয়ের রাজচন্দ্র বোস সেন্টার অফ ক্রিপ্টোলজি অ্যান্ড সিকিওরিটির দায়িত্বে রয়েছেন তিনি।পুলক বাবু বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্টের (আইআইএম) অধ্যাপক। আর গুরুচরণ বাবু অধ্যাপক ইনস্টিটিউট অফ হিউম্যান ডেভেলপমেন্টে (আইএইচডি)।