Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Presents
Personal Finance 2023

হঠাৎ চাকরি খোয়া গেলে হাল ধরতে পারে চাকরি বিমা পলিসি?

চাকরির অবসান, বরখাস্ত, সাময়িক বরখাস্ত বা অসুস্থতার কারণে চাকরি হারানো বা দুর্ঘটনার কারণে কোনও ধরনের অক্ষমতা থাকলেই এটি দাবি করা যেতে পারে। পলিসির সঙ্গেই শুধুমাত্র কভারের পুনর্নবীকরণ করা হয়।

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২৩ ২৩:০৬
Share: Save:

মন্দার বাজারে চাকরির অনিশ্চয়তা রাতের ঘুম কেড়ে নিচ্ছে। প্রায়শই শোনা যাচ্ছে কোনও পরিচিতর চাকরি হারানোর খবর। দুশ্চিন্তা, এই বুঝি আমার পালা! তাই সময় থাকতে থাকতেই বিকল্প উপায় ভেবে রাখুন। চাকরিহীন জীবনে নির্দিষ্ট কিছুদিনের জন্য হলেও হাল ধরতে পারে চাকরি বিমা পলিসি। কী ভাবে? রইল বিস্তারিত।

চাকরির বিমা ভারতে একটি স্বতন্ত্র পলিসি হিসাবে পাওয়া যায় না। বরং এটি সাধারণত স্বাস্থ্য বিমা বা গৃহ বিমা পলিসির সঙ্গে অ্যাড-অন কভার অর্থাৎ একটি অতিরিক্ত সুবিধা হিসাবে আসে। পরিবারের উপার্জনকারী বা পলিসিধারক যদি চাকরি হারিয়ে ফেলেন তা হলে চাকরির বিমা পলিসির মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আর্থিক সহায়তা পাওয়া যায়।

তবে শুধুমাত্র পলিসিতে উল্লিখিত কারণে চাকরি খোয়া গেলে তবেই নির্দিষ্ট ব্যক্তি ক্ষতিপূরণ পাবেন। সে ক্ষেত্রে আমাদের দেশে গুরুতর অসুস্থতা অথবা কোনও দুর্ঘটনার কারণে স্থায়ী অক্ষমতার উল্লেখ রয়েছে পলিসিতে, কারণ হিসাবে।

কোন পরিস্থিতিতে এই পলিসি আর্থিক কভারেজ প্রদান করে?

১। চাকরি চলে যাওয়া

২। অস্থায়ী স্থগিতাদেশ

চাকরি বিমা কী ভাবে কাজ করে?

১। নিজের কোনও অন্যায়ের কারণে নয়, সংস্থার সিদ্ধান্তে চাকরি গেল, পলিসি নথির আওতায় পলিসিধারক সংস্থাকে একই বিষয়ে অবহিত করতেপারেন

২। বিমা প্রদানকারী ক্লেইম অর্থাৎ বিমাকারীর দাবি খতিয়ে দেখেন

৩। বিমার শর্ত মিটলেই বিমার টাকা পাওয়া যায়

চাকরি বিমার জন্য আবেদন করার সময় কোন কোন বিষয়গুলি খেয়াল রাখবেন?

১। আবেদনকারীর আয় হতে হবে চাকরি থেকে। অর্থাৎ যিনি পলিসি কিনছেন তাঁকে বেতনভোগী হতে হবে।

২। বেতনদায়ীকে বিমার শর্ত মেনে স্বীকৃত সংস্থা হতে হবে

৩। স্ব-নিযুক্ত ব্যক্তিদের জন্য এই বিমা প্রযোজ্য নয়

চাকরির বিমা দাবির প্রক্রিয়া কী?

১। চাকরি হারানোর ক্ষেত্রে বিমা সংস্থাকে লিখিতভাবে বেকারত্বের প্রমাণ দিতে হবে বিমাকারীকে

২। পলিসিধারককে অন্যান্য সহায়ক নথিপত্র জমা করতে হবে

৩। নথিপত্র সন্তোষজনক হলে বিমা সংস্থা দাবির পরিমাণ পরিশোধ করে

কী কী নথি প্রয়োজন?

চাকরি বিমার অধীনে দাবি প্রক্রিয়ার জন্য ক্লেইম ফর্মসহ, চাকরি হারানোর কারণের নথি, কর্মজীবনের নথি, পরিচয় পত্র, পলিসি নথি, ফর্ম ১৬, শেষ ৩ মাসের স্যালারি স্লিপ, টার্মিনেশন লেটার ইত্যাদি নথি প্রয়োজন। অনেক ক্ষেত্রে বিমা সংস্থা আরও বিস্তারিত নথির দাবি করে থাকে।

এই অ্যাড-অনটিতে সাধারণত পলিসি শুরু হওয়ার ৩০ দিনের অপেক্ষার সময় থাকে এবং তারপরে দাবি করা যেতে পারে। চাকরির অবসান, বরখাস্ত, সাময়িক বরখাস্ত বা অসুস্থতার কারণে চাকরি হারানো বা দুর্ঘটনার কারণে কোনও ধরনের অক্ষমতা থাকলেই এটি দাবি করা যেতে পারে। যেহেতু এটি একটি স্বতন্ত্র পলিসি নয় বরং একটি অ্যাড-অন কভার, তাই পলিসির সঙ্গেই শুধুমাত্র কভারের পুনর্নবীকরণ করা হয়।

পলিসিধারকদের তাদের গৃহ ঋণ অথবা অন্যান্য ঋণ পরিশোধ করার জন্য ৩ মাস পর্যন্ত সময় দেওয়া হয় যেখানে বিমাকারী অন্য চাকরি খোঁজার সময়টুকু পেয়ে যান। এই বিমা কভারেজ পেতে কোনো স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রয়োজন নেই।

বিশেষজ্ঞদের কাছে সমাধান খুঁজতে সঞ্চয় নিয়ে আমাদের প্রশ্ন পাঠান — takatalk2023@abpdigital.in এই ঠিকানায় বা হোয়াটস অ্যাপ করুন এই নম্বরে — ৮৫৮৩৮৫৮৫৫২আপনার আয়, খরচ এবং সঞ্চয় জানাতে ভুলবেন না। পরিচয় গোপন রাখতে চাইলে অবশ্যই জানান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE