জামাইষষ্ঠীর মহাভোজে মাছের নানা পদ

জামাইষষ্ঠীর মহাভোজে মাছের নানা পদ

স্নেহের জামাই,
আশা করি তোমরা কুশলে আছ। বিয়ে করে তো বিদেশেই থিতু হলে! নেমন্তন্ন করে যে খাওয়াব, সে সৌভাগ্যও হল না। এ বার তোমার প্রথম জামাইষষ্ঠী। তাই ‘ওহ ক্যালকাটা’র শেফের কাছ থেকে কিছু বিশেষ রেসিপি জোগাড় করে মেল করলাম। বৌকে দেখিও, আমার হয়ে রান্না করে দেবে...

চিঁড়ের মাছ


উপকরণ: ভেটকি মাছের ফিলে ৩টি, তেল ৫ টেবিল চামচ, আদা-রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, লাল লঙ্কা গুঁড়ো ২ টেবিল চামচ, গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়ো ১ চা চামচ, গোলমরিচ গুঁড়ো ১/৪ চা চামচ, পাতিলেবুর রস ১ টেবিল চামচ, নুন অল্প, চিঁড়ে ৪ চা চামচ।
প্রণালী: আদা-রসুন বাটা, লঙ্কা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, গোলমরিচ গুঁড়ো, পাতিলেবুর রস মিশিয়ে ভেটকির ফিলে আধ ঘণ্টা ম্যারিনেট করতে হবে। গরম তেলে মাঝারি আঁচে মাছের দু’পিঠ সোনালি করে ভেজে নিতে হবে। নামানোর আগে পাতিলেবুর রস ও চিঁড়ে ছড়িয়ে আর-এক বার ভাজতে হবে। সঙ্গে টক দই বা চাটনি থাকলে খুব ভাল।

মনমোহিনী চিংড়ি


উপকরণ: গলদা চিংড়ি ১২টি, এলাচ ৪টি, লবঙ্গ ৩টি, তেজপাতা ২টি, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, আদা ১ ইঞ্চি, রসুন কোয়া ২টি, কাঁচা লঙ্কা ২টি, নারকেল কোরা আধ কাপ, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো আধ চা চামচ, নারকেল দুধ ১ কাপ, নুন স্বাদ মতো, সরষের তেল আধ কাপ।
প্রণালী: পেঁয়াজ, আদা, রসুন, লঙ্কা ও নারকেল কোরা ব্লেন্ডারে মিশিয়ে মশলা বানাতে হবে। নুন-হলুদ মাখিয়ে চিংড়ি মাছের দু’পিঠ লালচে করে ভেজে নিলেই অর্ধেক কাজ শেষ। এ বার একটু ভারী পাত্রে মাছ ভাজার তেল গরম করে তেজপাতা, এলাচ, লবঙ্গ ফোড়ন দিতে হবে। এর মধ্যে বাটা মশলা দিয়ে ভাল করে কষতে হবে। মিনিট সাতেক পরে নুন, হলুদ ও লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে অল্প জল মিশিয়ে দিলেই হবে। মশলা কষা হয়ে গেলে নারকেলের দুধ দিতে হবে। দুধটা ফুটলে চিংড়ি দিতে হবে। পাঁচ মিনিট পরে ঢাকনা খুলে উপরে ধনে পাতা ছড়িয়ে দিলেই রেডি।

 

আম পাবদা


উপকরণ: পাবদা মাছ ২টি, পোস্ত ও কাঁচা লঙ্কা ২ টেবিল চামচ, সরষে ২ টেবিল চামচ, কাঁচা আম ১টি, সরষের তেল ১ কাপ, নুন স্বাদমতো, পাঁচফোড়ন ১ চা চামচ।
প্রণালী: নুন, হলুদ মাখিয়ে সরষের তেলে পাবদা মাছ ভাজতে হবে। সেই তেলেই পাঁচফোড়ন দিতে হবে। ফোড়ন হয়ে গেলে সরষে বাটা, পোস্ত ও কাঁচা লঙ্কা বাটা দিয়ে কষতে হবে। কড়াইয়ের মশলা থেকে তেল বেরোতে শুরু করলে কাঁচা আম বাটা ও নুন দিতে হবে। গ্রেভি ফুটে উঠলে মাছ দেওয়ার পালা। মিনিট পাঁচেক কম আঁচে ঢাকা দিয়ে রান্না করলেই তৈরি। গরম ভাতের সঙ্গে দারুণ লাগে এই আম পাবদা।

 ( অনুলিখন: নবনীতা দত্ত ছবি: তন্ময় সেন)