Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

William Shatner in Space: মহাকাশে গেলেন প্রবীণতম, স্টার ট্রেক-এর ‘ক্যাপ্টেন কার্ক’ ঘুরে এলেন ৯০ বছর বয়সে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৪ অক্টোবর ২০২১ ১৩:০০
মহাকাশে উইলিয়াম শাটনার (মাঝখানে)। বুধবার। নিউ শেফার্ড মহাকাশযানে। ছবি- ব্লু অরিজিন-এর সৌজন্যে।

মহাকাশে উইলিয়াম শাটনার (মাঝখানে)। বুধবার। নিউ শেফার্ড মহাকাশযানে। ছবি- ব্লু অরিজিন-এর সৌজন্যে।

আজ থেকে ৫৫ বছর আগে আমেরিকায় যখন প্রিমিয়ার শো হয়েছিল দুনিয়া কাঁপানো টেলিভিশন সিরিয়াল ‘স্টার ট্রেক-অরিজিনাল সিরিজ’-এর তখন তাঁর বয়স ছিল ৩৫। স্বপ্ন দেখেছিলেন। কিন্তু সেই স্বপ্নপূরণের জন্য শুধুই বেছে নিতে পেরেছিলেন সিরিয়ালের একটি বড় চরিত্র, অভিনয়ের জন্য। ক্যাপ্টেন জেমস কার্কের মতো একটি অসমসাহসী চরিত্র। যা তাঁকে রাতারাতি চিনিয়ে দিয়েছিল বিশ্বকে।

কানাডার সেই অভিনেতা উইলিয়াম শাটনার বুধবার মহাকাশে গেলেন ৯০ বছর বয়সে। ধনকুবের জেফ বেজোসের সংস্থা ব্লু অরিজিন-এর বানানো ‘নিউ শেফার্ড’ রকেটে চেপে। মহাকাশে প্রবীণতম হিসাবে তাঁর নামও লেখা হয়ে গেল ইতিহাসে।

ব্লু অরিজিন-এর তরফে জানানো হয়েছে, টেক্সাসের ভ্যান হর্নের মহাকাশ বন্দর থেকে শাটনার এবং তাঁর তিন সঙ্গীকে নিয়ে নিউ শেফার্ড রকেটের উৎক্ষেপণ হয়েছিল বুধবার ভারতীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার কিছু পর। সেই রকেটই শাটনার এবং তাঁর সঙ্গী তিন জনকে পৌঁছে দেয় ভূপৃষ্ঠ থেকে ১০০ কিলোমিটার উপরে আকাশ এবং মহাকাশের প্রান্তসীমায়। আক্ষরিক অর্থে মহাকাশচারী নন, এমন মানুষদের নিয়ে এটাই ছিল ব্লু অরিজিন-এর দ্বিতীয় ‘সাবঅরবাইটাল ফ্লাইট’। প্রথমবার ১০ জুলাইয়ে গিয়েছিলেন বেজোস স্বয়ং। সঙ্গী হয়েছিলেন তাঁর ভাই মার্ক, নাসার প্রাক্তন মহিলা মহাকাশচারী ওয়ালি ফাঙ্ক এবং নেদারল্যান্ডসের কিশোর অলিভার দায়েমেন।

Advertisement

বেজোসের সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, স্টার ট্রেক-এর হইচই ফেলে দেওয়া অভিনেতা ১১ মিনিটের কিছু বেশি সময়ের মহাকাশ-ভ্রমণে ভরশূন্য অবস্থায় ছিলেন চার মিনিট। তার পর তিন সঙ্গীকে নিয়ে নিরাপদেই তিনি ফিরে এসেছেন টেক্সাসে।

মহাকাশ থেকে ফিরে কান্নায় ভেঙে পড়েন আনন্দ আর গভীর বিস্ময়ে আপ্লুত স্টার ট্রেক-এর অভিনেতা।

শাটনার ও তাঁর তিন সঙ্গীকে নিয়ে মহাকাশে রওনা হল নিউ শেফার্ড মহাকাশযান। ছবি- ব্লু অরিজিন-এর সৌজন্যে।

শাটনার ও তাঁর তিন সঙ্গীকে নিয়ে মহাকাশে রওনা হল নিউ শেফার্ড মহাকাশযান। ছবি- ব্লু অরিজিন-এর সৌজন্যে।


যাওয়ার এক সপ্তাহ আগে আমেরিকার ‘ন্যাশনাল ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (এনবিসি)’-এর ‘টুডে শো’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে শাটনার বলেছিলেনন, ‘‘মহাকাশ নিয়ে কল্পবিজ্ঞানভিত্তিক ফিল্মে অনেক আগেই দাপটে অভিনয় করেছি, ঠিক কথা। কিন্তু তাতে মহাকাশের গভীরতা, ব্যাপকতা বুঝতে পারিনি। এ বার আমার মহাকাশ ভ্রমণ সেই গভীরতা, ব্যাপকতা বুঝতেই। তার কাছে পৃথিবী কতই না তুচ্ছ, তা মহাকাশ থেকে বুঝে নিতে মহাকাশে গিয়েছিলাম।’’

গত জুলাইয়েই আর এক ধনকুবের রিচার্ড ব্র্যানসনও মহাকাশে ঘুরে আসেন তাঁর সংস্থা ‘ভার্জিন গ্যালাক্টিক’-এর মহাকাশযানে চেপে।

আরও পড়ুন

Advertisement