Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পোশাকই নয় কেবল, শপিং লিস্টে থাকুক নতুন মোবাইলও

নিজস্ব প্রতিবেদন
২২ অক্টোবর ২০১৮ ১৪:২২
নতুন ফোন কেনার প্ল্যান করলে দেখে নিন কোথাও ছাড় দিচ্ছে কি না। ছবি: শাটারস্টক।

নতুন ফোন কেনার প্ল্যান করলে দেখে নিন কোথাও ছাড় দিচ্ছে কি না। ছবি: শাটারস্টক।

জামাকাপড় থেকে ক্যামেরা-ল্যাপটপ-টিভি— পুজো আর শুধু পাঁচ দিনের নতুন জামায় আটকে নেই। উৎসবের প্রাক্কালে নিউ মার্কেট থেকে ই কমার্স সাইট, সর্বত্র কেনাকাটার ব্যস্ততা থাকে তুঙ্গে। তাই যদি নতুন ফোন কেনার প্ল্যান করে থাকেন, আপনাদের জন্য রয়েছে তিন রকম দামের মধ্যে মোটামুটি বাজারে উপস্থিত সেরা ফোনের তালিকা। ৬ থেকে ৬.২ ইঞ্চি ডিসপ্লে এবং ডুয়াল ৪জি সিম সাপোর্টের কথা মাথায় রেখে ফোনগুলি নির্বাচন করা হল।

১৫০০০ টাকার মধ্যে সেরা তিনটি ফোন

রেডমি নোট ৫ প্রো: ৪ জিবি র‍্যাম। ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ দিয়ে পাওয়া যাচ্ছে ১৫ হাজার টাকায়। ফোনের পিছনে রয়েছে (১২+৫) ডুয়াল ক্যামেরা। সামনে ২০ মেগাপিক্সেল সিঙ্গেল ক্যামেরা। নচ হাজির, ৪০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, স্ন্যাপড্রাগন ৬৩৬ প্রসেসর। বাজারে উপস্থিত সব থেকে বেশি বিক্রিত ফোনগুলির মধ্যে এটি একটি। তাই সেলফি হোক বা সারাদিন গেম খেলা, বেশ ভালই ব্যবহার করা যাবে ।

Advertisement

আসুস জেনফোন ম্যাক্স প্রো এম ১: এই ফোনটির একাধিক মডেল রয়েছে। সর্বোচ্চ মডেলটি ৬ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ দিয়ে দাম ঠিক ১৫ হাজার টাকা। ফোনের পিছনে ১৬+৫ মেগাপিক্সেল আর সামনে ১৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে। এই ফোনের সব থেকে বড় বৈশিষ্ট্য হল ৫০০০এমএএইচ ব্যাটারি। ফলে সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্য একবার চার্জ দিয়ে দুই দিন চলে যাওয়া উচিত।



বাজেট ফ্রেন্ডলি ফোন কিনতে চাইলে ঢুঁ মারুন অনলাইন স্টোরেও। ছবি: শাটারস্টক।

আরও পড়ুন: জ়ি-জিয়ো চুক্তি বিনোদনের মাত্রা বাড়িয়ে তুলবে​

নোকিয়া ৬.১: ২০১৮ সালের নিয়ম মেনে সমস্ত নতুন বৈশিষ্ট্য নিয়ে হাজির। ফোনের পিছনে ১৬+৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে। সামনে রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। স্ন্যাপড্রাগন ৬৩৬ প্রসেসর, ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ। সবার মতো এতেও ঝকঝকে স্ক্রিন রয়েছে। পরবর্তী অ্যান্ড্রয়েড আপডেট থাকবে হাজির। তবে দাম একটু বেশি। এই মুহূর্তে ১৬ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

২০০০০ থেকে ৩০০০০ হাজারের মধ্যে সেরা ফোন

পকো এফ ১: বাজারে আসা মাত্র ছবিটাই পাল্টে দিয়েছে। ফ্ল্যাগশিপ প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫, লিকুইড কুলিং, ৬ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ দিয়ে দাম পড়ছে ২১ হাজার টাকা। যা কিনা এক কোথায় অবিশ্বাস্য। সব থেকে দামী মডেলটির দাম ২৯ হাজার টাকা। তাতে রয়েছে ৮ জিবি র‍্যাম, ২৫৬ জিবি স্টোরেজ আর কেভলার ব্যাক কভার। ফলে আরও মজবুত হবে ফোনটি। ১২+৫ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা পিছনে। আর সামনে ২০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরায় বেশ ভাল ছবি তোলা সম্ভব।

আসুস জেনফোন ৫ জেড: বাজারের দ্বিতীয় ফোন যাতে সব থেকে কম দামের মডেলে হাজির ফ্ল্যাগশিপ প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫। ৬ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ দিয়ে মডেলটির মূল্য ৩০ হাজার টাকা। সব থেকে দামি মডেলটির দাম ৩৭ হাজার টাকা। তাতে যাতে রয়েছে ৮ জিবি র‍্যাম আর ২৫৬ জিবি স্টোরেজ। ১২+৮ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা পিছনে। আর সামনে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ব্যাটারী ৩৩০০ এমএএইচ ।

৩৫০০০ টাকার বেশি দামের ফোন

ওয়ানপ্লাস ৬: এই মুহূর্তে সব থেকে বেশি বিক্রি হওয়া দামি স্মার্টফোন ভারতে। ৩৫ হাজার টাকা থেকে শুরু এই ফোনের পিছনে রয়েছে ২০+১৬ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা। সামনে ১৬ মেগাপিক্সেল। দেখতে এক কথায় দারুণ এই ফোনে রয়েছে ফ্ল্যাগশিপ প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫, ৬ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ। সব থেকে দামি মডেলটির দাম ৪৪ হাজার টাকা। তাতে রয়েছে ৮ জিবি র‍্যাম আর ২৫৬ জিবি স্টোরেজ। দারুণ ডিসপ্লে, দারুণ ক্যামেরা এই ফোনের সব থেকে বড় বৈশিষ্ট্য।



সব বৈশিষ্ট্য দেখে তবেই কিনুন নতুন মোবাইল। ছবি: শাটারস্টক।

আরও পড়ুন: হার্ড ডিস্ক ক্র্যাশ করা বা খারাপ হওয়া আগে সাবধান!​

হুয়াই পি ২০ প্রো: এমন একটি ফোন, যা ফোনের ক্যামেরায় বিপ্লব এনে দিয়েছে। এই ফোনের ক্যামেরায় ডিএসএলআরের মতো ছবি ওঠে। যা চমকে দিয়েছে ফোটোগ্রাফার এবং টেক বিশেষজ্ঞদের। এটাই প্রথম ফোন, যাতে পিছনে রয়েছে ৩টি লাইকা কোম্পানির লেন্স যুক্ত ৪০, ২০ এবং ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। সামনে ২৪ মেগা পিক্সেলের ক্যামেরা। ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। আগের ফোনগুলির তুলনায় দাম অনেকটাই বেশি. বর্তমানে ৬৪ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

আইফোন টেন আর, টেন এস, টেন এস ম্যাক্স: আইফোন টেন এর নতুন টেন এস ম্যাক্স আজ পর্যন্ত ভারতের বাজারে সব থেকে দামি ফোন। একেবারে টাটকা তিনটি ফোন হাজির করেছে, আইফোন টেন আর, টেন এস, টেন এস ম্যাক্স । দাম শুরু ৭৬,৯০০ টাকা থেকে, সব থেকে দামি মডেলটির দাম ১,৪৪,০০০ টাকা। সব থেকে বেশি ক্ষমতাসম্পন্ন এ১২ প্রসেসর, ১২+১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা পিছনে, সামনে ৭ মেগাপিক্সেল।৬৪ থেকে ২৫৬ জিবি স্টোরেজ, ৩ জিবি ও ৪ জিবি র‍্যাম, অসম্ভব ভাল ডিসপ্লে, অসম্ভব ভাল ক্যামেরা, আর ওই অ্যাপল চিহ্ন। ফলে যদি স্টাইল স্টেটমেন্ট অন্য পর্যায় নিয়ে যেতে চান, হাতে একটা অ্যাপলের ফোন থাকলে জাস্ট জমে যাবে।

আরও পড়ুন

Advertisement