ফের সেঞ্চুরি করলেন ক্রিস গেল। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে জামাইকা থালাওয়াসের হয়ে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিওটসের বিরুদ্ধে ৬২ বল খেলে ১০টি ছয়-সহ ১১৬ রানের ইনিংসটি খেলেন ‘ইউনিভার্স বস’। এটি টি- টোয়েন্টি কেরিয়ারের তাঁর ২২ নম্বর সেঞ্চুরি, যা টি- টোয়েন্টির ইতিহাসে সর্বাধিক।

মুলত গেইল ও চ্যাদরিক ওয়ালটনের(৩৬ বলে ৭৩) ব্যাটে ভর করেই জামাইকা থালাওয়াস ২০ ওভারের শেষে ২১টি ছয়-সহ ২৪১ রানের বিশাল স্কোর খাড়া করে। ইনিংসের শেষের দিকে নেমে আন্দ্রে রাসেল করেন ৮ বলে ১৫ রান।

পাহাড়প্রমাণ রান তাড়া করতে শুরুটা ভাল করার প্রয়োজন ছিল কার্লোস ব্রাথওয়েটের নেতৃত্বাধীন প্যাট্রিওটস দলের। তাই ব্যাটে নেমে শুরু থেকেই আক্রমনের পথ বেছে নেন ওপেনার এভিন লুইস। ১৮ বলে ৫৩ রানের ইনিংস খেলে দলকে জয়ের পথে অনেকটাই এগিয়ে দেন তিনি। তবে তাঁদের হয়ে সর্বাধিক রান করেন দলের আরেক ওপেনার ডেভন থমাস(৪০ বলে ৭১)।

 

বল হাতে ওশেন থমাসের চার উইকেটও থালাওয়াসের হার রুখতে ব্যর্থ হয়। সাত বল বাকি থাকতেই ১৬টি ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে ২৪২ রানের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পাট্রিওটসরা। ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হন এভিন লুইস।

দুই ইনিংস মিলিয়ে বিশ ওভারের ক্রিকেটে এক ম্যাচে সর্বাধিক মোট ৩৭টি ছয় দেখা যায় এই ম্যাচে। খেলার শেষে বোলারদের প্রতি হতাশা উগড়ে দেন থালাওয়াস অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েল। তিনি বলেন, ‘‘আমরা বল করার সময় নিজেদের প্ল্যানগুলিকে ঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারিনি। বোলাররা সঠিক জায়গায় বল রাখতে ব্যর্থ হয়। যার কারণে এই বিপর্যয়।’’ অন্য দিকে জয়ের পর উচ্ছ্বসিত কার্লোস ব্রাথওয়েট জানিয়ে দেন, এই জয় তাঁদের মনোবলকে অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে, যা টুর্নামেন্টে কঠিন সময়ে দলকে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

আরও পড়ুন: ঋদ্ধির সুযোগ না পাওয়া বিস্ময়কর, বললেন অরুণলাল

আরও পড়ুন: বিরাটদের থামাতে ভারতীয় ব্যাটিং পরামর্শদাতা নিয়োগ করল দক্ষিণ আফ্রিকা